অনলাইন বুটিক ব্যবসায় রচনা

অভিনয়, উপস্থাপনার পাশাপাশি এবার শাড়ি বিক্রি করছেন ‘দিদি নাম্বার ওয়ান’ । সম্প্রতি ফেসবুকে লাইভে এসে রচনা শাড়ি বিক্রি করতে শুরু করলেন। তবে এই শাড়ি বিক্রি করে যে তিনি কটাক্ষের মুখে পড়বেন, তা একেবারেই আন্দাজ করতে পারেননি তিনি।  ফেসবুকের কমেন্ট বক্সে কু-মন্তব্য়ের ঝড় উঠতে শুরু করল।রচনা বন্দ্য়োপাধ্যায় আগেই জানিয়ে ছিলেন তিনি ‘রচনা’স ক্রিয়েশন নামে এক বুটিক খুলছেন।

লাইভে এসে রচনা জানালেন, ‘বহুদিন ধরে এই ইন্ডাস্ট্রিতে রয়েছি। গত ২০ বছর ধরে আমি আপনাদের জন্যই রচনা বন্দ্য়োপাধ্যায়  হয়েছি। আপনাদের অনেকেরই মনে হচ্ছে আমি কেন শাড়ি বিক্রি করছি ? কেন আমি বুটিক খুললাম? এর মূল কারণ হল, আমাকে অনেকেই বলেছিলেন, অভিনয়, দিদি নাম্বার ওয়ান, ছেলেকে মানুষ করা এবং সংসারের পাশাপাশি এমন কিছু করতে যাতে, সাধারণের সঙ্গে আরও বেশি যোগাযোগ স্থাপন করতে পারি। আর সেই কারণেই এই বুটিক। সেই কারণেই অনলাইনে শাড়ির ব্য়বসা।’

তবে রচনার এসব কথা একেবারেই হেসে উড়িয়ে দিলেন নেটিজেনরা। উলটো শাড়ি বিক্রি নিয়ে অভিনেত্রীকে নিয়ে শুরু হল ট্রোল। অনেকে বলছেন, গড়িয়াহাটে যে শাড়ি ৭০০ টাকায় পাওয়া যায়, সেটা নাকি রচনা ১০০০ টাকায় বিক্রি করছেন! অনেকে বললেন, রচনা ক্রিয়েশনের শাড়িগুলো অন্য দোকান থেকে নিয়ে আসা! আবার অনেকের মতে, সেলিব্রিটিরা যদি এভাবে অনলাইনে শাড়ি বিক্রি শুরু করেন, তাহলে ছোট ব্যবসায়ীরা বিপদে পড়বেন। অনেকে আবার রচনাকে সোজা জানালেন পরমা বন্দ্যোপাধ্যায় ও সুদীপা মুখোপাধ্যায়ের মতো গলা কাটবেন না!

রচনার অনেক আগেই অনলাইনে শাড়ি বিক্রি শুরু করেছেন ‘রান্নাঘর’ শোয়ের উপস্থাপক সুদীপা। তিনিও ফেসবুকে পেজে লাইভে এসে শাড়ি বিক্রি করেন। প্রায় সুদীপার মতোই রচনা শাড়ি বিক্রি শুরু করলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। নেটিজেনরা বলছেন, সেলিব্রেটিদের শাড়ি বিক্রি করা মোটেই উচিত নয়!

সংবাদ প্রতিদিন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

18 − 1 =