আতিফের ঢাকা কনসার্টের ভিডিও ভাইরাল

মঞ্চে তখন আতিফ আসলাম গাইছিলেন ‘মাস্ত কালান্দার’। হঠাৎ এক তরুণী উঠে পড়েন মঞ্চে। দৌড়ে গিয়ে আতিফকে জড়িয়ে ধরেন। নিরাপত্তারক্ষীরা তটস্থ। তরুণীকে মঞ্চ থেকে নামিয়ে দিতে চান তাঁরা। তবে তাঁকে কিছুতেই সরানো যাচ্ছে না। বাধা দিলেন আতিফ। স্নেহসুলভ ভঙ্গিতে এক হাতে জড়িয়ে ধরলেন। তরুণীটি আবেগে কাঁদতে কাঁদতে বারবার ‘আই লাভ ইউ’ বলে যাচ্ছেন আতিফকে। উত্তরে গায়ক ‘আই লাভ ইউ টু’ বললেন। হাসিমুখে কথা বললেন তাঁর সঙ্গে। তরুণীটি আতিফের হাতে চুমু খেয়ে মঞ্চ থেকে নেমে যেতেই আবার গান শুরু করলেন তিনি।

এমন একটি ক্লিপস ভেসে বেড়াচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। সারা বিশ্বের লাখ লাখ দর্শক সেটি শেয়ার করছেন। বিষয়টি বিশ্ব মিডিয়ার নজরে পড়েছে। গতকাল এ বিষয়ে খবর প্রকাশ করেছে টাইমস অব ইন্ডিয়া, দ্য ইকোনমিক টাইমস, ইন্ডিয়া টুডে, নিউজ ১৮, ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস, হিন্দুস্তান টাইমস, এনডিটিভি, মিড-ডে, স্পটবয়, উইন, মাসালা ডট কম, লাস্টলি, পিটিসি পাঞ্জাবি, পিপলসসহ ভারত ও পাকিস্তানের অনেক সংবাদমাধ্যম। আতিফ আসলামের সঙ্গে এ তরুণী ভক্তের ভিডিওটি ঢাকা কনসার্টের। ১৯ এপ্রিল ঢাকায় গাইতে এসেছিলেন আতিফ। তাঁর কনসার্ট দেখতে উপচে পড়ে দর্শক।

শুধু এ তরুণী নন, ঢাকায় আতিফের কনসার্ট চলাকালে আরও কয়েকজন ভক্ত উঠে পড়েন মঞ্চে। কেউ শুধু সেলফি তুলে চলে যান। কেউ তাঁকে দেন উপহার। তবে কাউকে বাধা দেননি গায়ক। পারফরম্যান্সের মাঝেই সবার সঙ্গে ছবি তোলেন। মানাল নামের আরেক তরুণীও এ দিন উঠে পড়েছিলেন মঞ্চে। কাশ্মীরের বাসিন্দা তিনি। এ কনসার্ট দেখতেই এসেছিলেন বাংলাদেশে। মানালের পোশাকে অটোগ্রাফ দেন আতিফ।

এ দৃশ্যটি নিয়েও সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রশংসার বন্যা বয়ে যাচ্ছে। সারা বিশ্বেই বড় বড় কনসার্টে এমন ঘটনা প্রায়ই ঘটে। প্রিয় শিল্পীকে ছোঁয়ার জন্য ভক্তরা উঠে পড়েন মঞ্চে। তবে সব সময় যে ভক্তদের ভাগ্য সুপ্রসন্ন থাকে, তা নয়। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে নিরাপত্তারক্ষীরা বাধা দেন। ভক্তদের এমন ‘উৎপাতে’ অনেক শিল্পী বিরক্ত হন। ব্যতিক্রম আতিফ আসলাম। কেউ ছবি কিংবা অটোগ্রাফ নিতে এলে, বা মঞ্চে উঠে পড়লে বাধা দেন না তিনি। বরং হাসিমুখে মেনে নেন তাঁদের পাগলামি।

পাকিস্তানের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী আতিফ আসলাম তৃতীয়বারের মতো ঢাকায় পারফর্ম করতে এসেছিলেন গত শুক্রবার। ১৮ ও ১৯ এপ্রিল রাজধানীর বসুন্ধরা স্পোর্টস কমপ্লেক্স খেলার মাঠে আয়োজিত হয় ‘লেটস ভাইভ আর্ট অ্যান্ড মিউজিক ফেস্টিভ্যাল’। দ্বিতীয় দিন পারফর্ম করেন আতিফ। দুই ঘণ্টার বেশি সময় ধরে ‘আদাত’, ‘তু জানে না’, ‘ম্যায় রং শরবত কা’, ‘তেরে বিন’, ‘পিয়া ওরে পিয়া’, ‘ও লামহে’, ‘পেহলি নাজার ম্যায়’, ‘তেরে লিয়ে’সহ জনপ্রিয় গানগুলো গেয়ে শোনান আতিফ আসলাম।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

five × 3 =