আবুল সরকারের গান ঐশীর কণ্ঠে

ঈদ উৎসবকে সামনে রেখে লিভিং রুম সেশানে এবার প্রখ্যাত বাউল আবুল সরকারের গান ‘তুমি যাইয়ো না বন্ধু রে’। পাভেল আরিনের সংগীত পরিচালনায় গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন হালের জনপ্রিয় শিল্পী ঐশী।

বাজিয়েছেন এক ঝাঁক তরুণ বাজিয়ে।

টাইম জোন নিবেদিত লিভিং রুম সেশানের ইউটিউব চ্যানেলে গানটি প্রকাশিত হল বৃহস্পতিবার (১৩ জুন)।

লিভিং রুম সেশানে গাইবার অভিজ্ঞতা জানালেন ঐশী, পাভেল ভাইয়ের সঙ্গে গান করতে গেলে শুধু কাজই হয় না, ফান হয় অনেক কিছু শেখাও হয়। লিভিং রুম সেশান-এ গাইতে গিয়ে সত্যিই মনে হয়েছে কোন লিভিং রুমে বসে আড্ডার ছলেই গানটি করেছি। খুব দারুণ অভিজ্ঞতা।

গানটি প্রসঙ্গে ঐশী বলেন, ফোক গানের প্রতি আমার সবসময় ভালো লাগা থাকে, গাইতেও উপভোগ করি। আবুল সরকারের গানটি করতে পেরে দারুণ লেগেছে। এ ধরণের গানগুলো শ্রোতাদের কানে যদি আবার জেগে ওঠে আমাদের বাংলা গানের ঐশ্বর্যটাই সবার সামনে আবার প্রতিষ্ঠিত হয়। আমরা তো কেবল পরিচিত কিছু নাম নিয়েই কাজ করি, এ ধরণের আবুল সরকারের মতো এমন যারা গুণী সাধক আছেন তাদের নামগুলো উচ্চারিত হলে আমাদের বাংলা গানের ভান্ডার যে কতো সমৃদ্ধ তা টের পাওয়া যাবে।

তরুণ প্রজন্মের শিল্পীদের মধ্যে সংগীত পরিচালক পাভেল আরিনের অন্যতম প্রিয় শিল্পী ঐশী। এমনটাই জানালেন তিনি। ঐশীকে দিয়ে কোন গানটি গাওয়াবেন এমন চিন্তার জট খুলে দেন সতীর্থ সংগীত পরিচালক জাহিদ নিরব।

আমরা পরিকল্পনা করেছিলাম ঐশী সবসময় যেভাবে গান করে সে স্টাইল থেকে বের করে এনে একটু অন্যভাবে তার গায়কিকে উপস্থাপন করার। আইরিশ ব্লুগ্রাস প্যাটার্নে মিউজিকটা করার চেষ্টা করেছি। আর বাউল আবুল সরকার এমন একজন দার্শনিক ও শিল্পী তাদের মতো সাধকদের নিয়ে কথা বলার সাহস আমার নেই। গানের কথায় এমন গভীর দর্শন ও জীবনবোধ গানটি করতে ভালো লাগার মাত্রা অনেকটা বাড়িয়ে দিয়েছে। – বললেন পাভেল আরিন।

লিভিং রুম সেশানে এর আগে প্রকাশিত হয় রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, কাজী নজরুল ইসলাম, সাধক জালাল খাঁ, সতীশচন্দ্র গোঁসাই, শচীন দেব বর্মণ, হাসান মতিউর রহমান ও গীতকার মোয়াজ্জেম হোসেনের কথায় আলেয়া বেগমের একটি গান প্রকাশিত হয়। প্রখ্যাত গুণী শিল্পী ও তরুণ শিল্পীদের সমন্বিত এ প্লাটফর্মে  প্রকাশিত গানগুলোতে দেখা গেছে মুজিব পরদেশী, কনা, ইমরান, কাজল দেওয়ান, জাহিদ নীরব, ইন্নিমা ও মাশা ইসলামকে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

two + 15 =