আমার কুমারীত্বর বিনিময়ে সোনাক্ষী তারকা: পূজা মিশ্র

সোনাক্ষী সিন্‌হার পরিবারের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ ‘বিগ বস’ খ্যাত পূজা মিশ্রের। তার দাবি সোনাক্ষীর বাবা, অভিনেতা-রাজনীতিক শত্রুঘ্ন সিন্‌হা এবং তার স্ত্রী পুনম সিন্‌হা নাকি পূজার কুমারীত্ব বিক্রি করে তারকা বানিয়েছেন নিজেদের মেয়েকে। তা ছাড়া কালো জাদু করার অভিযোগও এনেছেন পূজা।

পূজার কথায়, ‘‘সিনহা পরিবার অন্য মাত্রায় অপরাধী। নিজের বাড়িতে মধুচক্র চালাতেন। লোখান্ডওয়ালায় একই আবাসনে থাকতাম আমরা।তাদের বাড়িতে ডেকে আমাকে অজ্ঞান করে যৌন সঙ্গম করাতেন। ওরা শয়তান। শত্রুঘ্ন সিন্‌হার জন্মদিনে তাকে শুভেচ্ছা জানাতে ওদের বাড়ি গিয়েছিলাম। আমাকে কিছু একটা খাইয়ে আমার উপর কালো জাদু করেছিলেন তার স্ত্রী। আসলে আমার রূপের জন্য আমাকে হিংসা করতেন পুনম। আর নিজের মেয়ে সোনাক্ষীর চেহারা নিয়ে চিন্তিত ছিলেন তিনি। তাই এ সমস্ত কাজ করতেন। তা ছাড়া আমি সিঙ্গাপুর থেকে কেনাকাটা করে এলে আমার বাড়ি এসে জিনিস চুরি করতেন।”

পূজার প্রশ্ন, ‘‘সোনাক্ষীর তো পোশাকশিল্পী হওয়ার কথা ছিল। কী ভাবে বলিউডের নায়িকা হয়ে গেলেন আচমকা?’’ নিজেই তার কারণ জানিয়ে বললেন, ‘‘আমাকে দিয়ে যৌন সঙ্গম করিয়ে টাকা রোজগার করতেন ওরা। সেই টাকায় মেয়েকে তারকা বানিয়েছেন।”

৩৫টি ছবিতে নাকি কাজ করার কথা ছিল পূজার। কিন্তু তার দাবি শত্রুঘ্ন জোর করে তার বাড়িতে ঢুকে পড়ে পূজার প্রযোজকদের ভাঙিয়ে নিতেন। কোনও ছবিতেই কাজ করা হয়নি পূজার। পূজার দাবি, ২০০৭ সাল থেকে ২০১৪ পর্যন্ত এই ঘটনা বারবার ঘটেছে।

পূজা এর আগেও খবরের শিরোনাম দখল হয়েছেন।সালমান খানের ভাই সোহেল খান এবং আরবাজ খানের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছেন, তারা পূজাকে আট বার ধর্ষণ করেছেন।

আনন্দবাজার

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

5 × 3 =