আয়ারল্যান্ডকে চমকে দিয়ে ঐতিহাসিক জয় কানাডার

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ইতিহাসে প্রথমবার খেলতে নেমে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচেই জয়ের দেখা পেল কানাডা। চলতি বিশ্বকাপের নবম আসরে ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচে গতরাতে কানাডা ১২ রানে হারিয়েছে আয়ারল্যান্ডকে। নিজেদের প্রথম ম্যাচে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে ৭ উইকেটে হেরেছিলো কানাডা। পক্ষান্তরে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভারতের কাছে ৮ উইকেটে হেরেছিলো আইরিশরা।

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ৫৩ রানে ৪ উইকেট হারায় কানাডা। পঞ্চম উইকেটে ৬৩ বলে ৭৫ রানের জুটি গড়ে কানাডাকে লড়াইয়ে ফেরান নিকোলাস কার্টন  ও শ্রেয়াস মোভা।  দলীয় ১২৮ রানে ১৯তম ওভারে বিচ্ছিন্ন হন তারা।

হাফ-সেঞ্চুরির দ্বারপ্রান্তে গিয়ে আউট হন কার্টন  ৩টি চার ও ২টি ছক্কায় ৩৫ বলে ৪৯ রান করেন । ৩টি চারে ৩৬ বলে ৩৭ রান করেন মোভা। এতে ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৩৭ রানে পুঁিজ পায় কানাডা। প্রথম ম্যাচে যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে ৫ উইকেটে ১৯৪ রান করেছিলো কানাডা। আয়ারল্যান্ডের ক্রেইগ ইয়ং ও ব্যারি ম্যাককার্থি ২টি করে উইকেট নেন।

জবাবে খেলতে নেমে কানাডার নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ৫৯ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে লড়াই থেকে ছিটকে পড়ে আয়ারল্যান্ড। সপ্তম উইকেটে ৪১ বলে ৬২ রানের জুটিতে আইরিশদের ম্যাচে টিকিয়ে রাখেন জিওর্জি ডকরেল ও মার্ক অ্যাডায়ার। শেষ ওভারে ১৭ রানের প্রয়োজন পড়লে, ১ উইকেট হারিয়ে ৪ রানের বেশি নিতে পারেননি আয়ারল্যান্ড। ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১২৫ রান করে তারা।

২টি চার ও ১টি ছক্কায় ২৩ বলে অপরাজিত ৩০ রান করেন ডকরেল। ৩টি চার ও ১টি ছক্কায় ২৪ বলে ৩৪ রানে আউট হন অ্যাডায়ার। কানাডার জেরেমি গর্ডন ও ডিলন হেইলিগার ২টি করে উইকেট নেন। ম্যাচ সেরা হন কার্টন।

বাসস

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

10 + 9 =