ইসরায়েল থেকে বিমান আসা বিষয়ে ব্যাখ্যা দিয়েছে বেবিচক

‘ইসরায়েল থেকে বিমান এল ঢাকায়’ শিরোনামে বিভিন্ন পত্রপত্রিকার অনলাইন সংস্করণে প্রকাশিত সংবাদের বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়েছে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক)। শনিবার (১৩ এপ্রিল) বেবিচক এ বিষয়ে গণমাধ্যমে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিস্তারিত তুলে ধরে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, বাংলাদেশে তৈরি পোষাক মধ্যপ্রাচ্য ও ইউরোপে নিয়ে যাওয়ার উদ্দেশ্যে গত ৭ এপ্রিল একটি বিমান তেল আবিব থেকে উড্ডয়ন করে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে ঢাকায় অবতরণ করে ও কার্গো নিয়ে ১১টা ৫৫ মিনিটে ঢাকা থেকে উড্ডয়ন করে।

অপর একটি বিমান গত ১১ এপ্রিল সাতটা ৫৫ মিনিটে ঢাকায় অবতরণ করে এবং রাত সাড়ে ১২টার দিকে কার্গো নিয়ে ঢাকা থেকে উড্ডয়ন করে। দুটি বিমানই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নিবন্ধিত ও ওই দেশের বিমান সংস্থা ন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের।

বিজ্ঞপ্তিতে সংস্থাটি আরও জানায়, বাংলাদেশ ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বিমান চলাচল চুক্তি রয়েছে। বিমান চলাচল চুক্তি অনুযায়ী কার্গো ফ্লাইট দুটি ঢাকা এসেছিল। ঢাকা থেকে তৈরি পোশাক নিয়ে ফ্লাইট দুটি সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজাহ এবং ইউরোপের একটি গন্তব্যে গিয়েছে। বাংলাদেশ ও ইসরায়েলএর মধ্যে কোনো বিমান চলাচল চুক্তি নেই এবং ইসরায়েলের কোনো বিমান বাংলাদেশে অবতরণের কোনো ঘটনা ঘটেনি।

বাংলাদেশের সঙ্গে ইসরায়েলের কূটনৈতিক সম্পর্ক না থাকার পরও কেন শাহজালাল বিমানবন্দরে তাদের ফ্লাইট অবতরণ করলো, তা নিয়ে গত কয়েক দিন আলোচনা চলছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

4 + nineteen =