ঈদে জি-সিরিজ নিয়ে এলো আদ্যন্তর ব্যান্ডের অপেক্ষার চিঠি

প্রকাশিত হলো জি-সিরিজের ব্যানারে আদ্যন্তর ব্যান্ডের গান ‘অপেক্ষার চিঠি’। জি-সিরিজের উদ্যোগে বেলা ৩টায় তাদের এলিফ্যান্ট রোডের কার্যালয়ে এই গানটির প্রকাশনা উৎসব হয়। প্রকাশনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বামবা’র প্রাক্তন সভাপতি ও মাকসুদ ও ঢাকা ব্যান্ডের প্রধান মাকসুদুল হক, গাছ ব্যান্ডের মিউজিশিয়ান শেখ সাহেদ, প্রখ্যাত ব্যান্ড ফটোগ্রাফার ইমতিয়াজ আলম বেগ, এবিসি রেডিও’র প্রাক্তন সিইও এহসানুল হক টিটো, লিড্স এন্টারটেইনমেন্ট লিমিটেডের ফারুক রায়হান, শিল্পকলা একাডেমির পরিচালক (সংগীত, নৃত্য ও আবৃত্তি বিভাগ) কাজি হাবলু, স্পন্দন ব্যান্ড ও এসএএল স্টুডিওর স্বত্বাধিকারী কাজি আনান, জি-সিরিজের ব্যাবস্থাপনা পরিচালক নাজমুল হক ভূঁইয়া ও সিইও খাদেমুল জাহান প্রমুখ।

গানটি সম্পর্কে উপস্থিত অতিথিবৃন্দ ইতিবাচক মত প্রকাশ করেন। ব্যন্ডটি সম্পর্কে তারা তাদের গুরুত্বপূর্ণ মত প্রদান করেন। ভবিষ্যতে ব্যান্ডটি সংগীত জগতে তাদের স্বাক্ষর রেখে যাবে এই আশা রাখেন’ । এবং ভিডিও কলে ক্রিপটিক ফেইট এর সাকিব চৌধুরী কানেক্ট হয়ে ব্যান্ডকে শুভেচ্ছা জানান।

আত্মপ্রকাশের পর থেকেই প্রতিটি স্টেজ পারফরমেন্সে দারুণ সাড়া পেয়েছে ব্যান্ড “আদ্যন্তর”। যাত্রা শুরুর পর থেকেই আদ্যন্তর ব্যান্ড যেখানেই গেছে সেখানেই দর্শক মাতিয়েছে। সেই সঙ্গে এই প্রশ্নটিও শুনতে হয়েছে; কবে আসছে তাদের মৌলিক গান? ভক্তদের সেই অপেক্ষার পালা এবার ফুরলো। “অপেক্ষার চিঠি” শিরোনামে নিজেদের প্রথম মৌলিক গান প্রকাশ করল আদ্যন্তর।

“আধাঁরে খুঁজে যাই তোমায়, লিখে যাই কত কথা, তোমার অপেক্ষায় আমি আজও রয়ে যাই……” এমন কথার গানটি আজ মঙ্গলবার জি-সিরিজের ইউটিউব চ্যানেলে দেখা যাবে।এছাড়াও জি-সিরিজের অফিসিয়াল স্পটিফাইসহ মিউজিক প্ল্যাটফর্মগুলোতে পাওয়া যাবে।

গানটি স্পন্সর করেছে “লিড্স এন্টারটেইনমেন্ট লিমিটেড” । গানটির পোস্টার ফটোগ্রাফি করেছেন প্রখ্যাত ব্যান্ড ফটোগ্রাফার ইমতিয়াজ আলম বেগ এবং আর্টওয়ার্ক করেছেন নাফিসা মাইলাত। গানের জন্য টি-শার্ট বাজারে ছাড়ছে জনপ্রিয় পোশাক ব্র্যান্ড হেভি মেটাল টি-শার্ট। টি-শার্টটি হেভি মেটালের ওয়েবসাইট থেকে অনলাইনে অর্ডার করা যাবে।

আদ্যন্তর ব্যান্ডের বর্তমান লাইনআপ—তমাল রায় (ভোকাল), সাকিফ আলম (লিড গিটার), আফিফ তূর্ণ (রিদম গিটার), জাহিদ আরহাম (বেস গিটার), অরুফ বিন হুসাইন (ড্রামস)। “অপেক্ষার চিঠি” গানটি লিখেছেন সাকিফ আলম ও সুর করেছেন তমাল রায়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

13 + three =