উচ্চশিক্ষার জন্য বাংলাদেশে গমনেচ্ছু মিয়ানমারের শিক্ষার্থীদের দূতাবাসের সংবর্ধনা

রাষ্ট্রদূত ড. মো. মনোয়ার হোসেন আজ (বুধবার) দূতাবাসে বাংলাদেশের ‘এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইমেন’-এ অধ্যায়নের উদ্দেশ্যে গমনেচ্ছু মিয়ানমারের শিক্ষার্থীদেরকে সংবর্ধনা প্রদান করেন। এবছর (২০২৪-২৫ শিক্ষাবর্ষে) মিয়ানমারের চারজন শিক্ষার্থীকে ‘এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইমেন’ হতে Public Health, Computer Science এবং Environmental Science বিষয়ে বৃত্তি প্রদান করা হয়।

বক্তব্যের শুরুতে রাষ্ট্রদূত ‘এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইমেন’-এ ভর্তি হওয়া মিয়ানমারের শিক্ষার্থীদের অভিনন্দন জানান। তিনি বলেন বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়ে সুলভ খরচে দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে সেরা এবং উন্নত বিশ্বের সাথে মানানসই মানসম্পন্ন উচ্চ শিক্ষা প্রদান করা হয়ে থাকে। তিনি বলেন, দূতাবাস শিক্ষা ক্ষেত্রে সহযোগিতার মাধ্যমে দু’দেশের মাঝে সম্পর্ক দৃঢ়তর করার চেষ্টা চালাচ্ছে। এই উদ্দেশ্যে দূতাবাস ইতিমধ্যে মিয়ানমারে বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়ের অংশগ্রহণে একটি সফল, মানসম্মত শিক্ষামেলার আয়োজন করেছে।

শিক্ষার্থীদের বাংলাদেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি, সৌহার্দ্যপূর্ণ সমাজব্যাবস্থা, অর্থনৈতিক উন্নয়ন, সহনশীলতা এবং পর্যটন স্থানসমূহ সম্পর্কে অবহিত করা হয়। রাষ্ট্রদূত, শিক্ষার্থীদের দূতাবাসে অবস্থিত বঙ্গবন্ধু কর্নার ঘুরে দেখান এবং স্বাধীনতার মহান স্থপতি হিসেবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবদান তুলে ধরেন। নারীর ক্ষমতায়নসহ আর্থ-সামাজিক বিভিন্ন সূচকে বাংলাদেশের অগ্রগতি অর্জনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার কথাও তিনি বর্ণনা করেন। শিক্ষার্থীদের সাথে মতবিনিময়কালে, রাষ্ট্রদূত তাদের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা জানতে চান এবং অধ্যায়ন শেষে দু’দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক জোরদারকরনে অবদান রাখার আহবান জানান। দূতাবাসের পক্ষ থেকে শিক্ষার্থীদের শুভেচ্ছা উপহার প্রদান করা হয়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

one + two =