একই দিনে দুই দেশের হলে জয়া

এক দশকের বেশি সময় ধরে ঢালিউড ও টালিউড দুই ইন্ডাস্ট্রিতেই কাজ করছেন জয়া আহসান। এবার একই দিনে দুই দেশের হলে সিনেমা মুক্তি পাচ্ছে তাঁর। আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে ‘পেয়ারার সুবাস’, অন্যদিকে পশ্চিমবঙ্গে দেখা যাবে জয়ার ‘ভূতপরী’। সিনেমা দুটির শুটিং অনেক আগেই শেষ করেছিলেন জয়া। করোনা মহামারিসহ নানা জটিলতায় আটকে ছিল সিনেমা দুটি। অবশেষে একই দিনে আলোর মুখ দেখছে পেয়ারার সুবাস ও ভূতপরী।

পেয়ারার সুবাস সিনেমায় বাঙালির বৈবাহিক যৌনজীবনে পুরুষের আধিপত্য এবং এ বিষয়ে নানা প্রশ্ন তুলে ধরেছেন নির্মাতা নূরুল আলম আতিক। এতে আরও অভিনয় করেছেন তারিক আনাম খান, আহমেদ রুবেল, সুষমা সরকার প্রমুখ। এই নির্মাতার ‘ডুবসাঁতার’ দিয়েই বড় পর্দায় যাত্রা শুরু হয়েছিল জয়ার।

২০১৬ সালে শুরু হয়েছিল পেয়ারার সুবাসের শুটিং। নানা জটিলতা পেরিয়ে ২০২০ সালে শেষ হয় কাজ। অবশেষে আলোর মুখ দেখতে পারায় খুশি নির্মাতা নূরুল আলম আতিক। গত বছর ৪৫তম মস্কো আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে প্রিমিয়ার হয় পেয়ারার সুবাসের।

সিনেমাটি প্রযোজনা করেছে আলফা আই। পেয়ারার সুবাস দিয়েই সিনেমা প্রযোজনা শুরু করেছিল প্রতিষ্ঠানটি। আট বছর অপেক্ষার পর নিজেদের প্রথম সিনেমা মুক্তি পাওয়ায় উচ্ছ্বাসিত প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার শাহরিয়ার শাকিল। তিনি বলেন, ‘পেয়ারার সুবাস দিয়েই সিনেমা প্রযোজনা শুরু আলফা আইয়ের। ইতিমধ্যে আমাদের কয়েকটি সিনেমা মুক্তি পেলেও প্রথম সিনেমা মুক্তির অনুভূতি একেবারেই আলাদা। অনেক দিন ধরেই দর্শক সিনেমাটি দেখার অপেক্ষায় আছে। আশা করি দর্শকের মন জয় করবে পেয়ারার সুবাস।’

শাহরিয়ার শাকিল জানান, শিগগির শুরু হবে আনুষ্ঠানিক প্রচারণা। ৭ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে সিনেমার প্রিমিয়ার। সেখানে উপস্থিত থাকবেন জয়া আহসানসহ সিনেমার অন্য কলাকুশলীরা।

অন্যদিকে, ভূতের ভয় আর রহস্য নিয়ে ভূতপরী বানিয়েছেন সৌকর্য ঘোষাল। নির্মাতা জানান, ভূতের আত্মকথন এটি। এক নারী ১৯৪৭ সালে মারা যায়। এখনকার সময়ে এসে তার অতৃপ্ত আত্মার সঙ্গে দেখা হয় এক বাচ্চা ছেলের; যার হাত ধরে সে তার মৃত্যুর কারণ অনুসন্ধান করতে থাকে। একটা সময় সেই অতৃপ্ত আত্মা আবিষ্কার করে, ১৯৪৭ সালে তার মৃত্যুটি স্বাভাবিক ছিল না, ওটা ছিল খুন! এই ভূতপরীর চরিত্রেই দেখা যাবে জয়াকে আর ছোট্ট ছেলেটির চরিত্রে থাকছে বিশান্তক মুখার্জি। আরও আছেন ঋত্বিক চক্রবর্তী, সুদীপ্তা চক্রবর্তী, শান্তিলাল মুখার্জি প্রমুখ। ২০১৯ সালে শুটিং শেষ হলেও করোনার কারণে এত দিন আটকে ছিল সিনেমাটির মুক্তি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

19 + fifteen =