কণ্ঠশিল্পী খালিদ হাসান মিলুর মৃত্যুবার্ষিকী আজ

বাংলা সংগীত জগতের উজ্জল নক্ষত্র খালিদ হাসান মিলুর আজ ১৭তম মৃত্যুবার্ষিকী। ২০০৫ সালের ২৯ মার্চ মাত্র ৪৫ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন তিনি।১৯৮০ সালে মাত্র বিশ বছর বয়সে খালিদ হাসান মিলু তার সংগীত ক্যারিয়ার শুরু করেন। এই স্বল্প সময়ে তিনি ১২টি অ্যালবামে গান করেছেন।

১৯৮০ সালে তার প্রথম ওগো প্রিয় বান্ধবী অ্যালবামের মাধ্যমে ব্যাপক আলোড়ন তৈরি করেছিলেন। এছাড়াও তার উল্লেখযোগ্য অ্যালবামগুলো হচ্ছে- প্রতিশোধ নিও, নীলা, শেষ ভালোবাসা, আয়না, মানুষ ইত্যাদি।

কণ্ঠ দিয়েছেন প্রায় আড়াইশ’ চলচ্চিত্রের গানে। তারমধ্যে ‘যে প্রেম স্বর্গ থেকে এসে জীবনে অমর হয়ে রয়’, ‘অনেক সাধনার পরে আমি পেলাম তোমার মন’, ‘কতদিন দেখিনা মায়ের মুখ’, ‘নীলা তুমি আবার এসো ফিরে’, ‘নিশিতে যাইও ফুলবনে’-এরকম অসংখ্য জনপ্রিয় চলচ্চিত্রের গানে কন্ঠ দিয়েছেন এই চির সবুজ গায়ক।

নায়ক রাজ্জাক পরিচালিত ও অভিনীত বাবা কেন চাকর সিনেমায় ব্যবহৃত বিখ্যাত গান ‘আমার মতো এত সুখী নয়তো কারো জীবন’-এর মত অসংখ্য গানের এই শিল্পী আজও মানুষের হৃদয়ে বিশেষ স্থানে অবস্থান করছেন।

শ্রোতাদের ভালোবাসার পাশাপাশি মিলু পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। ‘হৃদয় থেকে হৃদয়’ চলচ্চিত্রে গানের জন্য ১৯৯৪ সালে তিনি এই সম্মাননা পান।তার দুই পুত্র প্রতীক হাসান ও প্রীতম হাসানও হাঁটছেন বাবার দেখানো পথে। তারাও গান করছেন।

জাগো নিউজ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

1 × one =