কান চলচ্চিত্র উৎসব: সাগরপারে উৎসবের শুরু আজ

আজ থেকে শুরু হচ্ছে কান চলচ্চিত্র উৎসবের ৭৭তম আসর। সিনেমাপ্রেমীরা ইতিমধ্যে পৌঁছে গেছেন ফ্রান্সের কান সৈকতে। আগামী ১১ দিনের জন্য সেখানে বসবে সারা বিশ্বের অভিনয়শিল্পী, নির্মাতা ও প্রযোজকদের মিলনমেলা। উৎসবের মূল ভবন পালে দ্য ফেস্টিভ্যালে টানানো হয়েছে বিশাল আকৃতির পোস্টার। জাপানের প্রয়াত পরিচালক আকিরা কুরোসাওয়ার ‘র‌্যাপসোডি ইন আগস্ট’ সিনেমাকে ঘিরে হয়েছে এবারের অফিশিয়াল পোস্টার। বিভিন্ন দেশের ২২টি সিনেমা জায়গা পেয়েছে প্রতিযোগিতা বিভাগে। ১৮টি সিনেমা লড়বে আঁ সার্তে রিগার্ডে। ২৫ মে পুরস্কার বিতরণীর মাধ্যমে পর্দা নামবে উৎসবের।

উদ্বোধনী সিনেমা

উৎসবের উদ্বোধনী সিনেমা নির্বচিত হয়েছে ফ্রান্সের ‘দ্য সেকেন্ড অ্যাক্ট’। কমেডি ঘরানার সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন কোয়ান্তাঁ দ্যুপিয়ো। অভিনয় করেছেন লিয়া সিডক্স, ভিনসেন্ট লিনডন, রাফায়েল কুইনার্ড প্রমুখ। সিনেমাটি আজ ফ্রান্সের প্রেক্ষাগৃহেও মুক্তি পাচ্ছে।

স্বর্ণপাম পাচ্ছেন মেরিল স্ট্রিপ

উৎসবের উদ্বোধনী দিনে পালে দ্য ফেস্টিভ্যাল ভবনের গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে সম্মানসূচক স্বর্ণপাম দেওয়া হবে মেরিল স্ট্রিপকে। এবারের আসরের মাধ্যমে দীর্ঘ ৩৫ বছর পর কান চলচ্চিত্র উৎসবের আঙিনায় পা রাখবেন অভিনেত্রী।

জুরিবোর্ডে নারীদের প্রাধান্য

এবার মূল প্রতিযোগিতা বিভাগের জুরিবোর্ডে ৯ জনের মধ্যে ৫ জন নারী। জুরিবোর্ডের প্রধানের দায়িত্ব পালন করবেন ‘বার্বি’খ্যাত নির্মাতা ও অভিনেত্রী গ্রেটা গারউইগ। এ ছাড়া আছেন মার্কিন অভিনেত্রী লিলি গ্ল্যাডস্টোন, ফরাসি অভিনেত্রী এভা গ্রিন, লেবানিজ পরিচালক ও চিত্রনাট্যকার নাদিন লাবাকি এবং তুর্কি চিত্রনাট্যকার ও আলোকচিত্রী এব্রু জেলান।

প্রতিবাদের আভাস

কয়েক বছর ধরেই কান চলচ্চিত্র উৎসবে নানা প্রতিবাদে সরব হয়েছেন চলচ্চিত্রের মানুষেরা। গত বছর ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ নিয়ে সরব ছিলেন অনেকেই। এবার ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরায়েলের হামলার প্রভাব পড়তে পারে কানে। নারীর প্রতি যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে ‘মিটু’ আন্দোলনের আভাস পাওয়া যাচ্ছে। এ ছাড়া প্রতিযোগিতা বিভাগে স্থান পাওয়া আলী আব্বাসির ‘দ্য অ্যাপ্রেনটিস’ সিনেমায় উঠে আসবে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের গল্প। সামনেই যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন, তাই সিনেমাটি মার্কিন নির্বাচনে প্রভাব ফেলতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

আলোচনায় ইরানি নির্মাতা

গত বছর কান উৎসবের বিচারক নির্বাচিত হওয়ার পরেও ইরান সরকারের নিষেধাজ্ঞার কারণে অংশ নিতে পারেননি ইরানি নির্মাতা মোহাম্মদ রাসুলফ। এবারের ৭৭তম আসরের মূল প্রতিযোগিতা বিভাগে জায়গা পেয়েছে রাসুলফের নতুন সিনেমা ‘দ্য সিড অব দ্য স্যাক্রেড ফিগ’। এবারও রাসুলফকে চাপ দেওয়া হয়েছে, যেন সিনেমাটি উৎসব থেকে সরিয়ে নেন। সম্প্রতি এই নির্মাতাকে আট বছরের কারাদণ্ড দেওয়ার পাশাপাশি চাবুক মারার নির্দেশ দিয়েছে দেশটির আদালত।

নজর থাকবে ভারত পাকিস্তানে

কিংবদন্তি নির্মাতা সত্যজিৎ রায় ও মৃণাল সেনের মাধ্যমে কান উৎসবে জায়গা করে নিয়েছিল ভারতীয় সিনেমা। এরপর দীর্ঘ সময় ধরে কানের তালিকায় ছিল না ভারতের কোনো সিনেমা। দীর্ঘ ৩০ বছর পর এবার কান উৎসবে জায়গা পেয়েছে ভারতীয় দুটি সিনেমা। মূল প্রতিযোগিতায় লড়বে পায়েল কাপাডিয়ার ‘অল উই ইমাজিন অ্যাজ লাইট’ এবং আঁ সার্তে রিগার্ডে লড়বে সন্ধ্যা সুরির ‘সান্তোষ’। এবার প্রথমবারের মতো কানে নিজেদের স্টল নিয়েছে পাকিস্তান। বিশ্বব্যাপী পাকিস্তানের সিনেমা ছড়িয়ে দেওয়ার লক্ষ্যেই এই পদক্ষেপ।

কানে সৌদি সিনেমার যাত্রা শুরু

৭৭ বছরের ইতিহাসে এবারই প্রথম কানে জায়গা পেয়েছে সৌদি আরবের সিনেমা। উৎসবের আঁ সার্তে রিগার্ড বিভাগে দেখানো হবে সৌদি নির্মাতা তৌফিক আলজায়েদির ‘নোরাহ’। সিনেমার কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন মারিয়া বাহরাভি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

twelve + 1 =