কীভাবে ইন্টেরিয়র ডিজাইনার হিসেবে ক্যারিয়ার গড়বেন?

আপনার কি ঘর সাজাতে খুব ভালো লাগে? যেখানেই ঘুরতে যাওয়া হোক না কেন, ঘর সাজানোর জিনিস দেখতে পেলেই হাত যেন এগিয়ে যায়। তাহলে নিজের এই স্বভাবকেই বেছে নিন সারা জীবনের সম্পদ হিসাবে। মানে এটাই কিন্তু হতে পারে অসাধারণ ক্যারিয়ার। কারণ বর্তমানে একজন প্রফেশনাল ইন্টেরিয়র ডিজাইনারের চাহিদা তুঙ্গে।

বর্তমান সময়ে গ্র্যজুয়েশন শেষ করতে সময় লাগে ৪ বছর। আবার অনেক সময় সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সেশনজটের কারণে কোর্স শেষ করতে সময় লাগে ৬-৭ বছর। কিন্তু কর্মমুখী শিক্ষায় আপনি ১-২ বছরের একটি কোর্স করে গড়ে নিতে পারেন আপনার ভবিষ্যৎ। অন্যের অধীনে চাকরি না করেও গড়ে তুলতে পারেন ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার কিংবা চার্টার্ড অ্যাকাউন্টদের মতো নিজস্ব সেবাধর্মী ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। এ ধরণের কর্মমুখী শিক্ষায় অধ্যয়নরত অবস্থায় আপনি আয় করতে পারবেন। এসব কর্মমুখী শিক্ষার মধ্যে বর্তমান সময়ে এগিয়ে ইন্টেরিয়র ডিজাইন।

বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বদলে যাচ্ছে সব কিছু। ইন্টেরিয়র ডিজাইনিং একটি বহুমাত্রিক পেশা, যেখানে সৃজনশীলতা ও প্রযুক্তি একসঙ্গে প্রয়োগ করা হয়। এর মূল লক্ষ্য হলো বাসা ও কর্মক্ষেত্রের সাজসজ্জাকে আরও আকর্ষণীয় করে তোলা।

সুন্দর গোছানো একটি ঘর কে না ভালবাসে? ঘরকে রঙিন করতে কার না ভালো লাগে? রঙের ব্যবহার, আসবাবপত্র, কাপড় গৃহসজ্জার উপকরণের সামগ্রিকতাকে ব্যবহার করে ঘর, অফিস সুন্দর করাই হচ্ছে ইন্টেরিয়র ডিজাইনিং।

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

15 − 9 =