কোল্ড ড্রিংসয়ে মাদক মিশিয়ে মিস ইন্ডিয়ার পর্ন ভিডিও শুট

কোল্ড ড্রিঙ্কসে মাদক মিশিয়ে অজ্ঞান করে মিস ইন্ডিয়া ইউনিভার্স পরী পাসওয়ানের পর্ন ভিডিও শুট করা হয়েছিল।এমন অভিযোগ করেছেন প্রাক্তন মিস ইন্ডিয়া ইউনিভার্স পরী পাসওয়ান। ধানবাদের বাসিন্দা পরী। গ্ল্যামার দুনিয়ার স্বপ্নে বুঁদ হয়ে মুম্বাইয়ে গিয়েছিলেন। সেখানেই এই ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ করেছেন তিনি।

২০১৯ সালে মিস ইন্ডিয়া ইউনিভার্স হয়েছিলেন পরী।নীরজ পাসওয়ান নামের একজনকে বিয়ে করেন। অল্প কয়েকদিনেই সংসারে অশান্তি শুরু হয়ে যায়। শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে ঘরোয়া হিংসার অভিযোগ দায়ের করেন পরী। তার অভিযোগের ভিত্তিতে নীরজকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

নীরজের গ্রেপ্তারের পর পরীর বিরুদ্ধে সোচ্চার হন তার পরিবারের সদস্যরা। নীরজের ভাই চন্দন নিজের ভাইয়ের বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেন। তিনি উল্টো পরীর বিরুদ্ধে পর্ন ফিল্মে অভিনয় করার অভিযোগ আনেন। জানান, পরীর আগে দু’বার বিয়ে হয়েছিল। পরীর ১২ বছরের এক সন্তানও রয়েছে।মিস ইন্ডিয়া ইউনিভার্স তার ভাইয়ের জীবন নষ্ট করার চেষ্টা করছেন বলেও অভিযোগ নীরজের ভাইয়ের।

এই অভিযোগের জবাব দিতে গিয়েই পরী জানান, মুম্বাইয়ে প্রতারণার শিকার হয়েছিলেন তিনি। কাজের জন্য এক প্রযোজনা সংস্থার অফিসে ডাকা হয়েছিল। সেখানে কোল্ড ড্রিংসের সঙ্গে মাদক মিশিয়ে তাকে খাওয়ানো হয়েছিল। আর তা খেয়ে বেহুঁশ হয়ে গিয়েছিলেন পরী। সেই সময় তার পর্ন ভিডিও শুট করা হয়। যা নেটদুনিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়া হয়। সেই সময় নাকি মুম্বাইয়ের এক থানায় অভিযোগ দায়ের করেছিলেন পরী পাসওয়ান। তবে তাতে বিশেষ লাভ হয়নি বলে জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই পর্ন ফিল্ম কাণ্ডে রাজ কুন্দ্রার নাম জড়িয়েছিল। তা নিয়ে গোটা দেশে ব্যাপক হইচই হয়েছিল। ১৯ জুলাই শিল্পা শেট্টির স্বামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। পরে তিনি জামিনে মুক্তি পান। তবে কুন্দ্রা কাণ্ডের সঙ্গে পরী পাসওয়ানের অভিযোগের কোনও যোগসূত্র আছে কিনা, সে সম্পর্কে এখনও নিশ্চিত কিছু জানা যায়নি।

এই সময়

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

five × 4 =