ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেন হরভজন

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে দূরে প্রায় ছয় বছর। তবে ঘরোয়া আর ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটটা চালিয়ে যাচ্ছিলেন। অবশেষে খেলোয়াড়ি জীবনের ইতি টানলেন টেস্টে ভারতের প্রথম হ্যাটট্রিকের রেকর্ডগড়া হরভজন সিং।শুক্রবার এক টুইটের মাধ্যমে সব ধরনের ক্রিকেটকেই বিদায় বলার সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন তিনি।

১৯৯৮ সালে আন্তর্জাতিক আঙিনায় অভিষেক হয়েছিল হরভজনের। ৪১ বছর বয়সী পাঞ্জাবের এই অফস্পিনার ভারতের হয়ে ১০৩ টেস্টে ৪১৭, ২৩৬ ওয়ানডেতে ২৬৯ এবং ২৮টি টি-টোয়েন্টিতে ২৫ উইকেট শিকার করেছেন।

২৩ বছর পর ক্রিকেটের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন হলো তার। টুইটারে হরভজন লিখেছেন, ‘সব ভালো জিনিসই একদিন শেষ হয়। আজ আমি এমন একটা খেলাকে বিদায় জানাচ্ছি যা আমার জীবনে সব কিছু দিয়েছে। ২৩ বছরের এই লম্বা যাত্রা যারা সুন্দর এবং স্মরণীয় করে রেখেছেন, তাদের প্রত্যেককে অনেক ধন্যবাদ।’

বিদায়বেলায় ইউটিউবেও একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন হরভজন। যেখানে তিনি বলেছেন, ‘ভারতের জার্সি পরে যখনই খেলতে নেমেছি, তার থেকে বড় অনুপ্রেরণা আর ছিল না। কিন্তু একটা সময় আসে যখন জীবনে কিছু কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হয়। জীবনে এগোতে হয়। গত কয়েক বছর ধরেই আমি একটা ঘোষণা করতে চাইছিলাম। ভাবছিলাম যে কবে আপনাদের সঙ্গে এই মুহূর্তটা ভাগ করে নেবো। আজ আমি সব ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসর নিচ্ছি। হয়তো অনেকদিন আগেই অবসর নিয়েছিলাম। কিন্তু আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করতে পারিনি।’

১৯৯৮ সালের মার্চে ব্যাঙ্গালুরুতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট দিয়ে আন্তর্জাতিক আঙিনায় যাত্রা শুরু হয়েছিল হরভজনের। প্রথম ম্যাচে দুটি উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। পরের মাসেই শারজায় নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে অভিষেকও হয়ে যায়। এরপর দুই ফরম্যাটেই ভারতীয় দলের অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে ওঠেন ‌‘ভাজ্জি’ নামে পরিচিত এই অফস্পিনার।

হরভজনের ক্যারিয়ারে সবচেয়ে স্মরণীয় সিরিজ ছিল ২০০১ সালে। ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সেই সিরিজেই নিজেকে আলাদা করে চেনান ভাজ্জি।

জাগো নিউজ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

five × four =