জর্জ হ্যারিসন-রবি শংকরের ‘১৯৭১ বিজয়পুর’ নতুন সংস্করণে

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে জর্জ হ্যারিসন-রবি শঙ্করের ‘১৯৭১ বিজয়পুর’ নতুন করে মুক্তি পেয়েছে বৃহস্পতিবার। আর্টল্যাব মিডিয়া প্রোডাকসন্সের ইউটিউব চ্যানেলে এটি মুক্তি পাবে।

গানে কণ্ঠ দেওয়ার পাশাপাশি কোরিওগ্রাফির কাজ করেছেন রাজশাহীর জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী রাজীব রাসেল। পুরো গানজুড়েই রয়েছে রক সংগীতের নানা ঐতিহাসিক ঘটনা, ব্যক্তিত্ব ও গানের রেফারেন্স।

সংগীতশিল্পী রাজীব রাসেল বলেন, ১৯৭১ সালের টেক্সাস আর নিউ জার্সির বাংলা ব্যান্ড গ্যাপ-এটিক্স এবং এস অ্যান্ড আরের যৌথ প্রয়াসে নতুন গান ‘১৯৭১ বিজয়পুর’ তৈরি করা হয়েছে। যেটি বাংলাদেশের স্বাধীনতার জন্য জনমত গড়তে জর্জ হ্যারিসন ও রবি শঙ্করের কনসার্টেও এটি গাওয়া হয়েছিল। স্বাধীনতার সংগ্রামকে এই ঘরানার সংগীত যেভাবে বদলে দেয় সেটি উল্লেখ করা হয়েছে।

ক্ষোভ, দুঃখ, বেদনা ও মৃত্যু—এসব আবেগ থেকে উৎসারিত সংগীতের এই শাখা ১৯৭১ সালে দেখিয়েছে কত শক্তি গিটারগুলোর ডিস্টর্টেড গর্জনে, ড্রামসের বজ্রনাদে, বেইজ গিটারের গাম্ভীর্যে আর কণ্ঠশিল্পীর যন্ত্রণাময় আর্তনাদে। এছাড়া গানের অভ্যন্তরে রক সংগীত প্রেমীদের জন্য রয়েছে চমকপ্রদ তথ্য নানা তথ্য।

তিনি আরও বলেন, তিন বছর ধরে একটু একটু করে গানটার পরিমার্জন করে চলে টেক্সাসের পিয়াল, অর্ঘ্য, গালিব আর নিউ জার্সির শোভন। সমারসেট, সাউথ বন্সউইক, নিউজার্সি আর অস্টিন টেক্সাস দুই রাজ্যের তিন জায়গায় এটির রেকর্ড হয়েছে।

বাংলাদেশ থেকে ওয়ারফেজের সামির হাফিজু মিক্সিং আর মাস্টারিংয়ের কাজ করেন। এছাড়া নিউ ইয়র্ক থেকে শ্যুটিং করেন হেলাল।

বাংলানিউজ

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

thirteen + 5 =