জ্যাকলিনের ৭ কোটির সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত

ফের বিপাকে জ্যাকলিন ফর্নান্দেজ। বলিউডের এই অভিনেত্রীর ৭ কোটি ২৭ লাখ টাকার অবৈধ অর্থ বাজেয়াপ্ত করল ইনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)।

 

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর প্রকাশিত প্রতিবেদনের মাধ্যমে জানা গেছে, ২০০ কোটি টাকার আর্থিক জালিয়াতিতে অভিযুক্ত জ্যাকলিনের প্রেমিক সুকেশ চন্দ্রশেখর। সেই জালিয়াতির তদন্তে নেমেই ইডি’র কর্মকর্তারা জানতে পারেন, এর মধ্যে জ্যাকলিনের অবৈধ সম্পত্তির পরিমাণ ৭ কোটি ২৭ লাখ টাকা। যার মধ্যে ৭ কোটি ১২ লাখ টাকাই ফিক্সড ডিপোজিট। বাকি ১৫ লাখ টাকা জ্যাকলিনের হয়ে একজন চিত্রনাট্যকারকে দিয়েছিলেন সুকেশ। আর সেই অবৈধ অর্থ বাজেয়াপ্ত করল ইডি।

 

গত বছর আর্থিক কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত সুকেশ চন্দ্রশেখরের সঙ্গে জ্যাকলিনের সম্পর্কের কথা প্রকাশ্যে আসে। জ্যাকলিনের সঙ্গে এই সুকেশের অন্তরঙ্গ মুহূর্তের একটি ছবিও ছড়িয়ে পড়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। ২০০ কোটি টাকার প্রতারণা এবং আরও ২০টি আর্থিক তছরুপের মামলায় নাম জড়ানোয় বর্তমানে দিল্লির রোহিণী জেলে বন্দি চন্দ্রশেখর।

 

গত বছর ডিসেম্বরে মুম্বাই বিমানবন্দরে আটকানো হয় জ্যাকলিনকে। অভিনেত্রীকে ৮ ডিসেম্বর ইডি দপ্তরে হাজিরার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। পাঁচ ঘণ্টা ধরে ইডি কর্মকর্তারা জেরা করেছিলেন শ্রীলঙ্কান এই সুন্দরীকে।

 

শোনা যায়, অবৈধ ৭ কোটি ২৭ লাখ ছাড়াও সুকেশের কাছ থেকে জ্যাকলিনের গুচ্চির ব্যাগ, জিমের পোশাক, দামি ব্র্যান্ডের জুতো, দু’টি হীরের আংটি, একাধিক ব্রেসলেট বাজেয়াপ্ত করেছিলো ইডি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

2 × 4 =