ডেঙ্গুর ভয়াবহতার আশঙ্কা, হাসপাতালের তালিকা চূড়ান্ত: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

এ বছর ডেঙ্গু আরও ভয়ানকভাবে ফিরতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন স্বাস্থমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন। তিনি বলেন, ডেঙ্গু রোগী বাড়লে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালের তালিকা ইতিমধ্যে চূড়ান্ত করা হয়েছে। একই সঙ্গে ডেঙ্গু চিকিৎসার প্রধান ওষুধ স্যালাইন উৎপাদনে ঘাটতি এড়াতে উৎপাদনকারী সব প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে।

শনিবার রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল পরিদর্শন শেষে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কাজ ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা করা। আমরা সেটি নিয়ে মিটিং করেছি, যাতে কোনো ধরনের ঘাটতি না হয়। সেই ব্যবস্থা আমরা নিয়েছি, ভবিষ্যতে আরও নেবো। তবে ডেঙ্গুর বেস্ট ট্রিটমেন্ট হচ্ছে প্রিভেনশন বা প্রতিরোধ।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ডেঙ্গুর চিকিৎসায় এখন সারা দেশের চিকিৎসকরা অভিজ্ঞ। সুতরাং আমরা আগে প্রতিরোধ করি। আমাদের দায়িত্ব প্রত্যেকের বাড়ি পরিষ্কার রাখা। তাহলে ডেঙ্গুর উপদ্রপ থেকে রক্ষা পাবো। আর চিকিৎসার ক্ষেত্রে যথাসাধ্য চেষ্টা করবো, মানুষ যাতে বিনা চিকিৎসায় মারা না যায়।

এসময় মন্ত্রী বলেন, কুর্মিটোলা হাসপাতাল অনেক বড়। কিন্তু জনবল সঙ্কট এখানে অনেক জায়গা খালি পড়ে আছে।  হাসপাতালটির সেবার মান বৃদ্ধিতে শিগগিরই জনবল নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হবে। এ ব্যাপারে সচিব ও ডিজিকে আমি বলেছি।

এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. রোকেয়া সুলতানা, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব মো. জাহাঙ্গীর আলম, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশিদ আলম প্রমুখ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

2 × one =