‘ঢালিউড কিং’ শাকিব খানের জন্মদিন আজ

ঢাকাই সিনেমার শীর্ষ নায়ক, ঢালিউডের কিং শাকিব খানের জন্মদিন আজ (২৮ মার্চ)। এদিন ৪৩ বছরে পা রাখলেন ঢাকাই সিনেমার এই পোস্টার বয়।। ১৯৭৯ সালের এই দিনে নারায়ণগঞ্জ জন্মগ্রহণ করেন তিনি।

এ বছর প্রথমবারের মতো আমেরিকায় নিজের জন্মদিন পালন করছেন শাকিব। তাই বলে থেমে নেই আয়োজন। শাকিব ভক্ত ও শোভাকাঙ্ক্ষীরা ঘড়ির কাঁটায় রাত ১২টা বাজতেই তাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাতে শুরু করেছেন। শোবিজের অনেক তারকাও যোগ দিয়েছেন এই মিছিলে।সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ভরে গেছে এই নায়কের প্রতি ভালোবাসায়। সবাই তাকে শুভেচ্ছা, শুভ কামনায় ভরিয়ে দিচ্ছেন।

ঢাকাই সিনেমার কিং খান শাকিব প্রথম সিনেমার শুটিং করেন ১৯৯৯ সালে। আফতাব খান টুলুর পরিচালনায় সেই সিনেমার নাম ‘সবাই তো সুখী হতে চায়’। এই সিনেমার শুটিং চলাকালীনই শাকিব খানের সুনাম ছড়িয়ে পড়ে ঢালিউডের পরিচালক ও প্রযোজকদের মাঝে। ফলে দ্রুত আরও কাজ পেতে থাকেন তিনি। আর সে কারণেই প্রথম অভিনীত সিনেমার আগেই ১৯৯৯ সালের ২৮ মে মুক্তি পায় শাকিব অভিনীত ‘অনন্ত ভালোবাসা’। যেটির পরিচালক সোহানুর রহমান সোহান।

ব্যক্তি জীবনে শাকিব এক পুত্রের জনক। তবে ভেঙে গেছে তার দাম্পত্য জীবন। ২০০৮ সালে প্রেম করে বিয়ে করা অপু বিশ্বাসকে তিনি ডিভোর্স দিয়েছেন। সেই ডিভোর্স কার্যকর হয়েছে ২০১৯ সালের মার্চ মাসে।

অভিনয়ের স্বীকৃতি হিসেবে মোট চারবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন শাকিব খান। ২০১২ সালে ‘ভালোবাসলেই ঘর বাঁধা যায় না’, ২০১৪ সালে ‘খোদার পরে মা’, ২০১৬ সালের ‘আরও ভালোবাসবো তোমায়’ ও ২০১৭ সালে ‘সত্তা’ ছবির জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেতা হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন তিনি।

শাকিব খানের প্রকৃত নাম মাসুদ রানা। তার বাবা ছিলেন একজন সরকারি চাকরীজীবী। মা গৃহিণী। তারা এক ভাই ও এক বোন। শাকিব খানের ইচ্ছে ছিল ডাক্তার বা ইঞ্জিনিয়ার হওয়ার। মনের অজান্তেই অভিনয়ের প্রতি ঝোঁক চলে আসে তার। এরপর দর্শকের ভালোবাসা, বিনোদনের প্রতি নিজের ভালোলাগা, সবকিছু মিলিয়েই এখন তিনি অভিনয়ে নিয়মিত হন। নিজের যোগ্যতা আর অভিনয় গুণে ধীরে ধীরে বনে যান ঢালিউডের শীর্ষ নায়ক।

ঢাকা পোস্ট

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

twenty − eleven =