‘পদ্মাপুরাণ’ চলচ্চিত্রের পোস্টার

ইতোমধ্যে ৩৫ শতাংশ কাজ শেষ হওয়া পদ্মাপুরাণ চলচ্চিত্রের পোস্টার প্রকাশিত হয়েছে। মুক্ত করা হয়েছে ট্রেলার। ‘নদী হইলো মাইয়া মাইনষের শরীরের লাহান, তারে চান্দে চান্দে বইয়া যাইতে দিতে হয়।’ এমন সংলাপ শোনা গেলো  ‘পদ্মাপুরাণ’ চলচ্চিত্রের ট্রেলারে। কালের বিবর্তনে প্রমত্ত পদ্মা তার আগের রূপ হারিয়েছে। সঙ্গে সঙ্গে বদলেছে দুই তীরে বসবাস করা মানুষের জীবন। সেই জীবনের গল্প নিয়েই নির্মিত হচ্ছে রাশিদ পলাশ পরিচালিত ‘পদ্মাপুরাণ’।

৫ অক্টোবর দুপুর ১২টায় ২ মিনিট ৩৬ সেকেন্ডের এই ট্রেলার প্রকাশ হয় লাইভ টেকনোলজির ইউটিউব চ্যানেলে। আগামী ৮ অক্টোবর মুক্তি পেতে যাচ্ছে চলচ্চিত্রটি। বর্তমানে ছবির নির্মাতা ও কলাকুশলীরা ব্যস্ত আছেন ছবির প্রচারণার কাজে।

এর আগে গত ২৬ সেপ্টেম্বর ‘পদ্মাপুরাণ’-এর অ্যানিমেশন টিজার প্রকাশ করে চমকে দিয়েছিলেন নির্মাতা রাশিদ পলাশ। তার ভাষ্যে, ‘এটিই বাংলাদেশর সিনেমায় প্রথম অ্যানিমেশন টিজার’।

চলচ্চিত্রটি প্রসঙ্গে নির্মাতা রাশিদ পলাশ বলেন, চলচ্চিত্রটি প্রসঙ্গে রাশিদ পলাশ বলেন, “‘পদ্মাপুরাণ’ মূলত নদীপারের গল্প। বর্তমান সময়ে নদীকেন্দ্রিক যে জীবন, তা আর নেই। নদী পারের যে পরিবর্তনগুলো আমরা আজ দেখি তাই মূলত আমার সিনেমার গল্প।”

“নদী পারে অভাব বেড়েছে, শিক্ষা নেই, নেই মানবিকতা। সবচেয়ে ভয়ানক হলো অপরাধমূলক কাজ বেড়ে গেছে। তাহলে কেমন আছে সেই কুবের, মালা, কপিলারা? আমার সিনেমার দর্শন মূলত এমন।”

দেশিয় চলচ্চিত্রকে বাঁচাতে ও তার নির্মাণকে সফল করতে সকলকে হলে গিয়ে চলচ্চিত্রটি দেখতে আহ্বান জানিয়েছেন নির্মাতা।

রায়হান শশীর চিত্রনাট্যে ছবিটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন সাদিয়া মাহি, প্রসূন আজাদ, শম্পা রেজা, জয়রাজ, সুমিত সেনগুপ্ত, কায়েস চৌধুরী, সূচনা শিকদার, রেশমী, হেদায়েত নান্নু, আশরাফুল আশিষ, সাদিয়া তানজিন প্রমুখ। চলচ্চিত্রটি প্রযোজনা করেছে পূন্য ফিল্মস।

নির্মাতা রাশিদ পলাশের হাতে রয়েছে ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপটে নির্মিত সিনেমা ‘প্রীতিলতা’। যার এখন পর্যন্ত ৩৫ ভাগ দৃশ্যধারণ শেষ। আগামী মাসের শেষের দিকে ছবির বাকি অংশের শুটিং হবে বলে জানান নির্মাতা।

বার্তা২৪.কম

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

three × 3 =