পুতুল নাচের ইতিকথা’ চলচ্চিত্রে জয়া, সঙ্গে আবীর ও পরমব্রত

কলকাতায় নতুন চলচ্চিত্রে যুক্ত হলেন জয়া আহসান। মানিক বন্দোপাধ্যায়ের উপন্যাস ‘পুতুল নাচের ইতিকথা’র চলচ্চিত্রায়ন করছেন নির্মাতা সুমন মুখোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার জয়া আহসান নিশ্চিত করেছেন চলচ্চিত্রটির ‘কুসুম’ চরিত্রে অভিনয় করতে যাচ্ছেন তিনি। এ চলচ্চিত্রে তিনি ছাড়াও অভিনয় করবেন বেশ কজন গুণী শিল্পী।

তবে, প্রধান চরিত্রে দেখা যাবে আবীর চট্টোপাধ্যায়, জয়া আহসান, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়কে। অন্য দুই গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে রয়েছেন ধৃতিমান চট্টোপাধ্যায় এবং অনন্যা চট্টোপাধ্যায়।

জয়া আহসান বললেন, “সুমন মুখোপাধ্যায় একজন গুরুত্বপূর্ণ নির্মাতা। তার নির্মিত ‘হারবার্ট’ আমার অসম্ভব পছন্দের একটা ফিল্ম। কথা বার্তা চলছিল, ‘পুতুল নাচের ইতিকথা’ বাংলা সাহিত্যের অন্যতম একটি সৃষ্টি। কুসুম চরিত্রটি যে কোন অভিনেত্রীর জন্য কাঙ্ক্ষিত। বেশকিছু ভালো অভিনয়শিল্পীর সাথে কাজ করব। অনন্যা চট্টোপাধ্যায় তো আমার খুবই পছন্দের একজন অভিনেত্রী। আবীর আছে, পরমব্রত আছে, ধৃতিমান আছেন আমার মনে হয় কাজটা ভালো হবে। সুমন মুখোপাধ্যায়ের প্রতি ওই আস্থা রাখাই যায়। ”

স্বাধীনতার পূর্ববর্তী সময়কে ফ্রেমবন্দি করবেন সুমন। তিরিশের দশকের শেষের দিক থেকে চল্লিশের দশকের শুরু পর্যন্ত। তিনি বলেন, “মূল উপন্যাসে সময়টা আরও পিছনে ছিল, আমি খানিকটা এগিয়ে এনেছি। তা ছাড়া উপন্যাসের সব কিছু ছবির চালচিত্রে ধরানো সম্ভব নয়। দুটো মাধ্যমের চলন আলাদা। আমি চারিত্রিক রসায়নের উপরে বেশি জোর দিয়েছি।

চলচ্চিত্রটির প্রযোজক সমীরণ দাসের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে নির্মাতা আরও বলেন, “এই ছবিটার জন্য দুটো জিনিস খুব জরুরি ছিল। দক্ষ অভিনেতা এবং বড় বাজেট। ভাল অভিনেতা নির্বাচনের পাশাপাশি ছবির বিপণনের দিকটাও মাথায় রাখতে হয় এখন। আবীর, জয়া, পরম সেই ব্যালান্সটা করতে পারবে। প্রযোজক বাজেটের বিষয়ে আমাকে নির্ভার করেছেন। এই ছবির শুটিং শিডিউল ২৫ দিনের, যেটা বাংলা ছবিতে এখন দেখা যায় না।”

ছবির আবহসঙ্গীতের দায়িত্বে থাকছেন প্রবুদ্ধ বন্দ্যোপাধ্যায়। আগামী মাসের প্রথম থেকে শুটিং শুরু হবে চলচ্চিত্রটির।

বার্তা২৪

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

five × 4 =