পূজোর সনাতনী সাজে অধরা খান

পুরো কলকাতা শহর সেজেছে পূজোর সাজে। তা দেখে অভিভূত অধরা। নিজেও সেজেছেন- মাথায় সিঁদুর, হাতে শাঁখা ও শঙ্খ যেন চিরচেনা এক সনাতনী তরুণী।

অধরা খান বললেন, “আমি কখনো পূজো দেখিনি তেমনভাবে। কলকাতায় এসে মুগ্ধ হয়ে গেছি। পুরো শহর এত সুন্দর করে সেজেছে-আলোয় ঝলমল করছে। আমাকেও আমার সিনেমার টিম শখ করে এই রূপটা দিলো। সবাই খুব পছন্দ করছে। খুব ভালো লাগছে। সবাইকে শারদীয় শুভেচ্ছা।”

এই প্রথম কলকাতার চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন ঢালিউড নায়িকা অধরা খান। মালায়লাম পরিচালক কারুনাক্কারের পরিচালনায় চলচ্চিত্রটি নির্মিত হচ্ছে দুবাই, কলকাতা ও মুম্বাইয়ের বিভিন্ন লোকেশনে। সে সূত্রেই বর্তমানে কলকাতায় অবস্থান করছেন এ নায়িকা।

পূজোর ভীড়েও চলছে তার সিনেমার শুটিং। টানার ৪দিন শুটিং শেষে গন্তব্য এবার মুম্বাই। সিনেমায় কলকাতার তরুণী অধরা। মালায়লাম এক তরুণের সঙ্গে তার প্রেম। ভাষার পার্থক্য নিয়েও এগিয়ে যায় তাদের সম্পর্ক।

অধরা বললেন, “খুব সুন্দর গল্প। দারুণভাবে নির্মিত হচ্ছে। মালায়লাম পরিচালক, পুরো অচেনা টিম কিন্তু সবাই খুব আপন করে নিয়েছে। মনেই হচ্ছে না দেশের চিরচেনা গণ্ডির বাইরে কিছু করছি।”

অধরা জানান, একটি ওটিটি প্লাটফর্মকে লক্ষ্য করে নির্মিত হচ্ছে চলচ্চিত্রটি। মুক্তি পাবে কলকাতার সিনেমা হলেও। বাংলাদেশের দর্শকদের ওটিটি প্লাটফর্মে চলচ্চিত্রটি দেখার সুযোগ থাকছে।

বাংলাদেশে অধরা খানের মুক্তি সম্ভাব্য চলচ্চিত্র সৈকত নাসিরের ‘বর্ডার’। নির্মিতব্য চলচ্চিত্রের তালিকায় আছে- সৈয়দ অহিদুজ্জামান ডায়মন্ড পরিচালিত ‘কোভিড নাইনটিন ইন বাংলাদেশ’, অপূর্ব রানার‘উন্মাদ’ ও সৈকত নাসির পরিচালিত ‘গিভ অ্যান্ড টেক’।

বার্তা২৪

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

sixteen − 7 =