প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট হিসেবে এমসিসির দায়িত্বে কনর

প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট হিসেবে মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাবের (এমসিসি) দায়িত্ব নিলেন ক্লেয়ার কনর। এমসিসির ২৩৪ বছরের ইতিহাসে প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট হিসেবে যাত্রা শুরু হলো কনরের। গতকাল এমসিসির লর্ডস অফিসে প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন শুরু করেন কনর। গত বছরের জুনে কনরের নিয়োগের বিষয়টি নিশ্চিত করেছিলেন শ্রীলংকার সাবেক অধিনায়ক কুমার সাঙ্গাকারা। সাঙ্গাকারার স্থলাভিষিক্ত হন কনর।

গত বছরই দায়িত্ব নেওয়ার কথা ছিল কনরের। কিন্তু করোনাভাইরাসের প্রকোপের কারণে সেটি এক বছর পিছিয়ে যায়। এই সময়ে দ্বিতীয় মেয়াদে প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করেন সাঙ্গাকারা। ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডে (ইসিবি) নারী ক্রিকেটে পরিচালকের দায়িত্বেও আছেন দেশটির হয়ে ১৬ টেস্ট, ৯৩ ওয়ানডে ও দু’টি টি-টোয়েন্টি খেলা কনর। ২০০০ সালে এমসিসির আজীবন সদস্য নির্বাচিত  হয়েছিলেন তিনি।

এমসিসির দায়িত্ব নিয়ে কনর বলেন, ‘এমসিসির প্রেসিডেন্ট হতে পেরে আমি সত্যিই সম্মানিত বোধ করছি। কুমার সাঙ্গাকারাকে ধন্যবাদ জানাতে চাই এই গুরুত্বপূর্ণ পদে আমার উপর আস্থা রাখার জন্য।’ তিনি আরও বলেন, ‘ড্রেসিংরুম ও বোর্ডরুমে অর্জিত অভিজ্ঞতা দিয়ে আগামী ১২ মাস চেষ্টা করবো ক্লাবের নেতৃত্ব ও কমিটির সঙ্গে একসাথে কাজ করতে, ভূমিকা রাখার ও তাদের সমর্থন দেওয়ার। আমি সত্যিই এমসিসি দলের অংশ হবার জন্য উন্মুখ হয়ে আছি।’

১৯৯৫ সালে ১৯ বছর বয়সে ইংল্যান্ডের হয়ে অভিষেক হয় কনরের। ২০০০ সালে অধিনায়কত্ব পান তিনি। তার অধীনে ৪২ বছরের ইতিহাসে ২০০৫ সালে প্রথমবারের মত অ্যাশেজ সিরিজ ১-০ ব্যবধানে জিতে ইংল্যান্ড নারী দল। এদিকে, এমসিসির নতুন  চেয়াারম্যান হিসেবে কাজ শুরু করেছেন ব্রুস কার্নেগি।

বাসস

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

19 − 6 =