ফাহমিদা নবীর জন্মদিন আজ

আজ  জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী ফাহমিদা নবীর জন্মদিন। ৪ জানুয়ারী ১৯৬৬ সালে জন্ম নেন তিনি। জন্মদিন উপলক্ষে তার তেমন কোনো পরিকল্পনা নেই। ঘরোয়াভাবেই দিনটি পালন করবেন বলে জানান। তিনি বলেন, জন্মদিন নিয়ে কখনোই আমার কোন পরিকল্পনা থাকে না। এবার আরো নেই, কারণ আমার মেয়ে আনমোল আমার সঙ্গে নেই, লন্ডনে আছে। তবে জন্মদিন আম্মা’সহ পরিবারের সবার সঙ্গে কাটবে-এটাই ভালোলাগা। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন, আমিও সবার জন্য দোয়া করি।

এদিকে নতুন বছরের শুরুতে বাংলাদেশ বেতারে সুরকার হিসেবে (এ গ্রেড) তালিকাভুক্ত হয়েছেন ফাহমিদা। সঙ্গীতশিল্পী হিসেবে বেতারের তালিকাভুক্ত হয়েছিলেন ১৯৭৭ সালে। এবার সুরকার হিসেবে তালিকাভুক্ত হলেন। ফাহমিদা বলেন ৪৪ বছর পর সরকারী একই প্রতিষ্ঠানে সুরকার হিসেবে তালিকাভুক্ত হতে পেরে ভীষণ আনন্দিত ও গর্বিত। আমার জন্য এটি একটি বড় অর্জন। ফাহমিদা ইতোমধ্যে বহু গানের সুর করেছেন। ইতোমধ্যে তার সুর করা নতুন তিনটি গানের কাজ চলছে। শিঘ্রই গানগুলোর কাজ শেষ করে মিউজিক ভিডিও নির্মাণ করা হবে।

১৯৭৯ সালে তার গায়িকা জীবন শুরু করেন এবং তিন যুগ ধরে সাফল্যের সাথে গান গেয়ে যাচ্ছেন তিনি। তিনি উপমহাদেশীয় আধুনিক এবং ক্ল্যাসিকাল গান গেয়ে থাকেন। এছাড়া তিনি রবীন্দ্র সঙ্গীত এবং নজরুল সঙ্গীতও গেয়ে থাকেন। ২০১১ সালে তিনি সেলিম আল দীনের লেখা ১০টি গান নিয়ে অ্যালবাম প্রকাশ করেন। এছাড়া বাপ্পা মজুমদারের সাথে যৌথভাবে তিনি ২০০৬ সালে প্রকাশ করেন অ্যালবাম ‘এক মুঠো গান-১’। ২০১০ সালের ভালবাসা দিবসে প্রকাশ হয় তার দ্বিতীয় অ্যালবাম ‘এক মুঠো গান-২’।

এনামুল করিম নির্ঝর পরিচালিত আহা! চলচ্চিত্রে ‘লুকোচুরি লুকোচুরি গল্প’ গানটিতে কণ্ঠ দিয়ে তিনি শ্রেষ্ঠ প্লেব্যাক গায়ক হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান। এছাড়াও তিনি চ্যানেল আই পারফরম্যান্স অ্যাওয়ার্ড (২০০৮) ও মেরিল-প্রথম আলো পুরস্কার (২০০৯) লাভ করেন। প্রখ্যাত সঙ্গীতশিল্পী মাহমুদ উন নবীর মেয়ে ফাহমিদা নবী। তার অপর বোন সামিনা চৌধুরীও দেশের নন্দিত সঙ্গীতশিল্পী।

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

one × 2 =