বইমেলায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে তুষির তর্কের ভিডিও ভাইরাল

বইমেলায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানের মধ্যে একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের সঙ্গে তর্কে জড়িয়েছিলেন নাজিফা তুষি; ভিডিওটি ফেসবুকে ভাইরালের পর তা নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন এই মডেল ও অভিনেত্রী।মাস্ক না পরে বইমেলায় ঘোরাঘুরি করায় শনিবার নাজিফা তুষিকে দুইশ টাকা অর্থদণ্ড দেয় ঢাকা জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মনীষা রানী কর্মকারের নেতৃত্বে পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালত। স্বাস্থ্যবিধি মানাতে কয়েকদিন ধরেই বইমেলায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মনীষা রানী কর্মকার; এক সপ্তাহে বেশ কয়েকজনকে অর্থদণ্ড দিয়েছে আদালত।

ভিডিওতে দেখা গেছে, দণ্ড দেওয়ার আগে নির্বাহী হাকিমের সঙ্গে তর্ক করছেন তুষি। টেলিভিশন সাংবাদিকরা ঘটনার ভিডিও ধারণ করলে উত্তেজিত হয়ে তিনি ম্যাজিস্ট্রেটকে বলেন, তাকে জনপরিসরে কেন ‘হেনস্তা’ করা হচ্ছে? এ সময় মনীষা রানী কর্মকার বলেন, “এটা একটি আদালত পরিচালনা হচ্ছে, এটা কোনো শুটিং নয়। আপনি স্বাস্থ্যবিধি মানছেন কি না, রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে আমরা সেটা দেখছি। আপনাকে দণ্ডবিধি ১৮৬০ এর ২৬৯ ধারা অনুযায়ী ২০০ টাকা অর্থদণ্ড দিচ্ছি।”

পরে মাস্ক না পরার জন্য দুঃখ প্রকাশ করে অর্থদণ্ড পরিশোধ করেন তুষি। ভিডিওটি ফেসবুকে ছড়িয়ে পরার পর রোববার তুষি জানান, মাস্ক না পরার জন্য তিনি দুঃখ প্রকাশ করে দণ্ড মেনে নিয়েছেন। তবে ঘটনার ভিডিও ধারণ করতে থাকায় তিনি উত্তেজিত হয়ে তর্কে জড়িয়েছিলেন। শনিবার একটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচনের আয়োজনে অতিথি হিসেবে যোগ দিতে মেলায় গিয়েছিলেন তুষি; মাস্ক ব্যাগে রেখে ঘোরাঘুরির মধ্যে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নজরে পড়েন তিনি।

“জিনিসটা (ভিডিও) ভাইরাল হলো; অনেকেই বিষয়টি নিয়ে কথা বলছে। আমার তো একটা পরিচয় আছে, ব্যক্তিগত জীবন আছে। আমার ভুল হতে পারে, সেটা যে কোনো মানুষেরই হতে পারে। কিন্তু আমার সঙ্গে খোলামেলা কথা বলেন। বারবার বলা সত্ত্বেও ক্যামেরায় শুট করা হচ্ছিল। পরে আমার বন্ধুরাও এসেছিল, ওদের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়েছে।”

তুষির ভাষ্যে, “আমি তাকে (ম্যাজিস্ট্রেট) বলেছিলাম, আমার যদি কোনো প্যানিশমেন্টও হয় সাইডে গিয়ে কথা বলেন। কিন্তু উনি আমার সঙ্গে সাইডে গিয়ে কথা বলছিলেন না; বিষয়টি বারবার ঘুরাচ্ছিলেন। আমি দেখছিলাম, সামনে ভিডিও করা হচ্ছে। আমি ফাইনও দিয়ে দিলাম।

“অনেক মানুষের সামনে, অনেক ক্যামেরার সামনে আমাকে বারবার হ্যা‌রাস করছিল। তখন আমি শাউট করে বলছিলাম, আমাকে হ্যারাস কেন করছেন? আমাকে ফাইন করেন, আমি টাকা দিয়ে দিচ্ছি। মেলায় আরও মানুষ ছিল কোনো মাস্ক পরে নাই। ইনফ্যাক্ট পুলিশদের মধ্যেও অনেকে মাস্ক পরে নাই। সেটাও বলছি না। কিন্তু আমার পারমিশন ছাড়া সেটা ক্যামেরায় কেন নেবেন?”

২০১৪ সালে একটি সৌন্দর্য বিষয়ক প্রতিযোগিতা থেকে উঠে আসা তুষি ২০১৬ সালে ‘আইসক্রিম’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে পরিচিতি পান। ‘নেটওয়ার্কের বাইরে’ নামে একটি ওয়েব চলচ্চিত্রে কাজ করেন। ‘হাওয়া’সহ তার কয়েকটি সিনেমা মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে।পাশাপাশি বিজ্ঞাপন ও টিভি নাটকেও কাজ করেন তিনি।

বিডিনিউজ

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

fifteen − 11 =