বাংলাদেশের সাত তরুণ উদ্যোক্তার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি

সালেক সুফী

মার্কিন সাময়িকী ফোর্বসের স্বীকৃতি পেয়েছে সাত জন বাংলাদেশী তরুণ। তাদেরই দুই জন শাটল নামের আপস ভিত্তিক নারীদের নিরাপদ যাতায়াত নিশ্চিত করার প্রয়াসী কোম্পানির দুই তারুণ্যের কথা শুনলাম বাংলাদেশের এলএক্রোনিক মিডিয়ায়। আমি গর্বিত, আনন্দিত ওদের ব্যাতিক্রম ধর্মী সৃষজনশীল উদ্যোগের সীকৃতি অর্জনে। অনেক হতাশার মাঝেও বাংলাদেশের তরুণরা আসার আলোক বর্তিকা জ্বালিয়ে  দিচ্ছে প্রতিনিয়ত। এই ধরণের ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র উদ্যোগের মাধ্যমেই এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ।

সীমিত আয়তনের  ছোট মহানগরীতে  দুই কোটি মানুষের আবাস। সেখানে সীমিত সড়কে অসহনীয় যানজটে প্রতিনিয়ত দুঃসহ সময় কাটে নারী-পুরুষ সবার। বিশেষত সামাজিক মূল্যবোধের অবক্ষয় জনিত কারণে নারীদের অনেক হেনস্থা হতে হয়। যতটুকু শুনলাম স্যাটেল অনেক মহান উদ্দেশ্য আর লক্ষ্য নিয়ে এগিয়ে চলেছে। ইতিমধ্যেই ঢাকার কিছু রুটে নারীদের নিরাপদ যোগাযোগের জনপ্রিয় মাধ্যম হয়ে উঠেছে। পাবলিক ট্রান্সপোর্টের অপ্রতুলতা, রাইড শেয়ার ব্যবস্থার অপেক্ষাকৃত অধিক ভাড়ার পাশাপাশি এই ধরণের অপেক্ষাকৃত  সুলভ খরচের  উদ্যোগ অনেক স্বস্তিদায়ক বলে মনে করি।

আমি নর্থ -সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক দুই উদ্যোক্তা সোহো ফোর্বস তালিকায় স্থান পাওয়া সাত তরুণকে অভিনন্দন জানাচ্ছি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

19 − 15 =