বাংলাদেশ পারবে কি সামাল দিতে?

সালেক সুফী: পেস আক্রমণ কিছুটা আনকোরা হলেও ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট স্কোয়াড ধবল ধোলাই করার জন্য পর্যাপ্ত রিসোর্স সমৃদ্ধ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের তৃতীয় সারির দলের কাছে শেষ সিরিজে দেশের মাটিতে কৃষ্ণ ধোলাই হয়েছিল বাংলাদেশ। এবারের যে দলটি ঘোষিত হলো ব্যাটিংয়ে অনেক সমৃদ্ধ।

বাংলাদেশ টেস্ট দল কিন্তু বিচ্ছিন্ন অবস্থায়।  মুশফিক নেই, টপ অর্ডার নড়বড়ে, তাসকিন, শরিফুল খেলবে না টেস্ট। নতুন দায়িত্বে পুরানো দলনায়ক ছাড়াই আজ বাংলাদেশ দল অনুশীলন ম্যাচ খেলবে। তামিমকে নিয়ে চলছে অকারণ বাহাস।  আমি ভরসা পাচ্ছি না বাংলাদেশ দল  নিয়ে।

ওয়েস্টইন্ডিজ স্কোয়াড: ক্রেগ ব্রাথওয়েট, জার্মিন ব্লাকউড, ইনক্রুমাহ বোনার, জন ক্যাম্পবেল, জশুয়া ডা সিলভা, আজারি জোসেফ, কাযিল মায়ার্স, গুডাকেশ মুটি, অ্যান্ডার্সন ফিলিপ্স, রেমন্ড রেইফার, জেইদন সিল্স এবং ডিভন টমাস।

তামিম-জয় দলের সূচনা করবে। বাংলাদেশের এযাবৎ কালের অন্যতম সেরা ওপেনার তামিম ইকবালের খেলায় ভাটির টান কিন্তু অনেকটাই দৃশ্যমান।  ফুটওয়ার্ক আগের মতো মসৃণ নেই।  অফস্টাম্পে পিচ পড়া শার্প ইনসুইংগুলো আগের মতো সামাল দিতে পারছে না। আমি দলের স্বার্থে ওকে চার নম্বরে খেলার প্রস্তাব বাস্তবসম্মত মনে করি। তাহলে ওর স্থানে খেলবে কে? বিসিবি সভাপতির জানা বিকল্প কোথায়?

ওপেনার জয় যথেষ্ট সম্ভাবনাময়। শর্ট বাউন্সি বল খেলায় কিছুটা টেকনিক সীমিত। তবে সময়ে ঠিক হবে। কিন্তু ওর স্থায়ীত্ব কোথায় এই মুহূর্তে তামিম ছাড়া।  হতে পারতো লিটন, সৌম্য, বিজয়।  কিন্তু নির্বাচকমণ্ডলী সেভাবে ভাবেননি। তিন নম্বরে মমিনুলকে চারে ঠেলে দিয়ে নাজমুল শান্তকে দিয়ে পরীক্ষাও বাস্তবায়িত হয়নি। বরং মোমিনুল এবং মুশফিকের ব্যাটিং স্থান পিছিয়ে দেয়া অশুভ প্রভাব ফেলেছে টপ অর্ডার বাটিংয়ে।

ঢের ভালো ছিল সময় মতো মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের জন্য টপ অর্ডার স্লট।  এখন আর সেই সুযোগ নেই। তামিম, জয়, শান্ত, মোমিনুল, লিটন, সাকিব, ইয়াসির রাব্বিকে দিয়েই সাজাতে হবে ব্যাটিং অর্ডার।

জানিনা খেলার জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত কিনা মেহেদী মিরাজ। প্রস্তুত থাকলে ওকে টপ অর্ডারে কোথাও  জায়গা করে দেওয়া যেতে পারে। বাংলাদেশ হয়তো সাকিব সহ তিন স্পিনার নিয়ে খেলবে। সেক্ষেত্রে তাইজুল, এবাদত, মুস্তাফিজকে নিয়ে গড়া হবে টেস্ট একাদশ।

আমি সবসময় আশাবাদী বাংলাদেশ নিয়ে। কিন্তু এবার ভয় কেন আতঙ্কে আছি বাস্তববাদী হিসাবে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল ওদের মূল পেস বোলারদের বিশ্রাম দিয়েছে।  দ্বিতীয় সারির পেস অ্যাটাক সামাল দেয়ার মতো যোগ্যতাও নাই এই মুহূর্তে বাংলাদেশ টেস্ট দলের।

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

12 + 18 =