বিটলসের পল ম্যাককার্টনি হারানো গিটার ফিরে পেলেন ৫১ বছর পর

বিটলসের ব্যাস গিটারিস্ট পল ম্যাককার্টনি দীর্ঘ ৫১ বছর পর ফিরে পেয়েছেন তাঁর হফনার ব্যাস গিটার। বিটলসের প্রথম দুটি অ্যালবামে ব্যবহার করা হয়েছিল এই গিটারটি। হারানোর পর বিটলস ও ম্যাককার্টনির ভক্তরা একপ্রকার বিশ্ব তোলপাড় করে ফেলেছিলেন এই গিটারের অনুসন্ধানে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ম্যাককার্টনির এই গিটারটিকে ‘বিশ্বের সবচেয়ে আইকনিক হারিয়ে যাওয়া বাদ্যযন্ত্র’—বলা হয়।’ ‘দ্য লস্ট ব্যাস প্রজেক্ট’—নামের এই গিটার ১৯৬৩ সালে বিটলসের দুই একক গান ‘শি লাভস ইউ’ ও ‘অল মাই লাভিং’ গানে ব্যবহার করা হয়।

অনুসন্ধান দলের অন্যতম পরিচালক নিক ওয়াস রয়টার্সকে বলেছেন, ‘এই ব্যাস গিটারটি একসময় বিশ্বে বিটলসের প্রতি মানুষের উন্মাদনা তৈরি করেছিল। এ জন্যই এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সামনের দিনে এই গিটার আবারও বিটলসের প্রতি মানুষের মধ্যে উন্মাদনা তৈরি করবে।’

ভক্তদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে গত বছর ‘দ্য লস্ট ব্যাস প্রজেক্টের’ পক্ষ থেকে এই গিটারটির অনুসন্ধানের জন্য মানুষের কাছে আহ্বান জানানো হয়। এবং এতে ইতিবাচক ফলাফল পাওয়া যায়। দ্য লস্ট ব্যাস প্রজেক্ট জানিয়েছে, সেই আহ্বানের পর ব্যাপক প্রচারণার ফলে এক ব্যক্তি পল ম্যাককার্টনির প্রতিষ্ঠানে যোগাযোগ করেন এবং ব্যাস গিটারটি ফিরিয়ে দেন। ওই ব্যক্তি যুক্তরাষ্ট্রের হেস্টিংস শহরের দক্ষিণ উপকূলের বাসিন্দা।

মজার বিষয় হলো, গিটারটি গত বছরই ফেরত পাওয়া যায়। কিন্তু তখন বিষয়টি গণমাধ্যমকে জানানো হয়নি, জানানো হয় ঘটনার ঠিক এক বছর পর গত ১৫ ফেব্রুয়ারি। এর আগে, ১৯৭২ সালের অক্টোবরে লন্ডনের নটিংহিল এলাকায় একটি ভ্যান থেকে গিটারটি চুরি হয়েছিল।

ম্যাককার্টনির ওয়েবসাইটে তাঁর মুখপাত্র বলেছেন, ‘গিটারটি যে আসলেই দ্য লস্ট ব্যাস প্রজেক্ট, হফনার ও পল ম্যাককার্টনি তা নিশ্চিত করেছেন। নিঃসন্দেহে এটি প্রজেক্টের সবার জন্য অনেক বেশি আনন্দের বিষয়।’

তবে ওয়াস রয়টার্সকে জানিয়েছেন, গিটারটির কিছু ক্ষতি হয়েছে। এটির বেশ কয়েকটি জায়গা সামান্য ভেঙে গেছে। ঠিক করতে হলে এটিতে কিছু পরিবর্তন আনতে হবে। গিটারটির পিকআপগুলো কাজ করছে না, সেগুলোও বদলাতে হবে জানিয়েছেন ওয়াস। তিনি বলেছেন, ‘তা ছাড়া চিন্তার আর কোনো কারণ নেই। সবকিছু ঠিক করে গিটারটি আগের মতো বাজানো যাবে।’

এর আগে, ১৯৬০ সালে জন লেননের চুরি হয়ে যাওয়া গিটার ২০১৫ সালে ক্যালিফোর্নিয়ার বেভারলি হিলে এক নিলামে ২৪ কোটি ১০ লাখ টাকায় বিক্রি হয়েছিল। গিটারটির ক্রেতা জানান, তিনি কেনার সময় জানতেন না যে গিটারটির সঙ্গে জন লেননের নাম যুক্ত।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

nine − two =