বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে বিনিয়োগে বিদেশি বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ বাড়ছে: নসরুল হামিদ

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, বাংলাদেশের বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে বিদেশি বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ ক্রমাগত বাড়ছে।

তিনি শনিবার ঢাকায় ইনডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশের (আইইউবি) অ্যাকাডেমিক অ্যাওয়ার্ড ২০২১ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন আইইউবি’র বোর্ড অব ট্রাস্টিজ’র চেয়ারম্যান এ মতিন চৌধুরী। সভাপতিত্ব করেন আইইউবি’র উপাচার্য তানভীর হাসান।

এই মুহূর্তে বাংলাদেশের বিদ্যু‍ৎ ও জ্বালানি খাতের আকার কমবেশি ২৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার এ কথা উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘এ খাতে দেশে প্রায় প্রতিদিনই বিলিয়ন ডলারের বিনিয়োগের প্রস্তাব আসছে। বাংলাদেশের ব্যাপারে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে আত্মবিশ্বাসের উৎস হচ্ছে সারাদেশে শতভাগ বিদ্যুতের ব্যবস্থা করে অসম্ভবকে সম্ভব করা।’

মতিন চৌধুরী বলেন, ‘স্বাধীনতার ৫০ বছর আমাদের জন্য একটা মাইলফলক। অনেক দেশই এই মাইলফলক অর্জন করতে পারে না। তাই আমাদের সামনে এখন অনেক বড় মিশন। এই বছরটা বিশেষ কারণ এজন্যই যে, এ বছরই আমাদের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী। সামনে এগিয়ে যাওয়ার প্রতিজ্ঞা করার জন্য এর চেয়ে ভালো সময় আর হয় না।’

উপাচার্য তানভীর হাসান বলেন, সবার জন্য মানসম্পন্ন শিক্ষা নিশ্চিত করাই আইইউবি’র লক্ষ্য। ৪র্থ শিল্প বিপ্লবের এই সময়ে গোটা পৃথিবী আরও বেশি করে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির (আইসিটি) ওপর নির্ভরশীল হয়ে উঠছে। ভবিষ্যতে অনেক কাজই যন্ত্রের সাহায্যে সম্পাদন করতে হবে। তাই মানব সম্পদ উন্নয়নে বিনিয়োগ করার সময় এসেছে।

অনুষ্ঠানে ২০২০ সালে অসাধারণ ফলাফলের জন্য ২টি ক্যাটাগরিতে শিক্ষার্থীদের পুরস্কৃত করা হয়। ক্যাটাগরি দু’টি হচ্ছে, ভাইস চ্যান্সেলরস অনার লিস্ট এবং ডিনস অনার লিস্ট।

ভাইস চ্যান্সেলরস অনার লিস্টভুক্ত প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে ১০ হাজার টাকা এবং ডিনস অনার লিস্টভুক্ত প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে ৫ হাজার টাকা ও সনদপত্র বিতরণ করা হয়।

বাসস

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

four × three =