বড় স্ক্রিন আর দ্রুতগতির প্রসেসর থাকবে নতুন অ্যাপল ওয়াচে

পরিবর্তন আসছে অ্যাপল ওয়াচের হার্ডওয়্যারের নকশায়। স্মার্টওয়াচটির নতুন সংস্করণে আরও দ্রুতগতির প্রসেসর থাকবে। হার্ডওয়্যারের বাহ্যিক নকশা হবে আরও সমতল, থাকবে আরও বড় ডিসপ্লে।

অ্যাপল স্মার্টওয়াচের আসন্ন মডেল নিয়ে ওই নতুন তথ্য জানিয়েছেন প্রযুক্তি বাজারের সংশ্লিষ্টরা। সচরাচর সেপ্টেম্বর মাসে আইফোন ও অ্যাপল ওয়াচের নতুন মডেলগুলো উন্মোচন করে অ্যাপল। তাই অ্যাপল ওয়াচের নতুন সিরিজ ৭ সংস্করণও সেপ্টেম্বর মাসে উন্মোচন করা হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

ব্লুমবার্গের সংবাদকর্মী মার্ক গার্ম্যানের বরাত দিয়ে প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট দ্য ভার্জ জানিয়েছে, ৪১ মিলিমিটার এবং ৪৫ মিলিমিটার– এই দুই মাপে বাজারে আসবে সিরিজ ৭।

হার্ডওয়্যার ও বাহ্যিক নকশার হিসেবে গেল কয়েক বছরের মধ্যে প্রথমবারের মতো অ্যাপল ওয়াচে বড় পরিবর্তন আসছে বলে জানিয়েছে দ্য ভার্জ। বলা হচ্ছে, “ডিসপ্লে এবং কিনারাগুলো আরও সমতল” হবে সিরিজ ৭ স্মার্টওয়াচে।

সিরিজ ৬-এর তুলনায় সিরিজ ৭-এর ডিসপ্লে প্যানেল এবং পুরো কেসিং আকারে কিছুটা বড় হবে। প্রতিটি মডেলই আকারে ১ মিলিমিটার করে বাড়বে, অর্থাৎ ৪১ মিলিমিটার এবং ৪৫ মিলিমিটারের হবে।

বাহ্যিক নকশা বাদে সিরিজ ৭-এ আরও শক্তিশালী প্রসেসর থাকবে বলে দ্য ভার্জকে জানিয়েছেন গার্ম্যান। তবে, স্বাস্থ্যবিষয়ক বড় কোনো আপগ্রেড থাকছে না নতুন অ্যাপল ওয়াচে।

দ্য ভার্জ বলছে, তিন বছর পর পর স্মার্টওয়াচের হার্ডওয়্যার আপগ্রেড করে অ্যাপল। মার্কিন টেক জায়ান্ট শেষবার স্মার্টওয়াচের কেসিং নিয়ে বড় পরিবর্তন এনেছিলো সিরিজ ৪-এ। পরের দুটি মডেলে নির্মাণ উপাদান আর রঙ ছাড়া বড় কোনো পরিবর্তন বা আপগ্রেড আসেনি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

thirteen + three =