ভাইরাল গানের শিল্পী কে এই তরুণী?

সাম্প্রতিক সময়ে ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, টিকটকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের নানা মাধ্যমে চোখ রাখলেই ভেসে আসে একটা মাইকের সামনে দাড়িয়ে গাইছে গান এবং হাসিমাখা একটা গায়িকা৷  দুর্বোধ্য ভাষার গান গাইছেন এক নারী। নাম তার ইয়োহানি ডি সিলভার। বয়স সবেমাত্র ১৮। জন্মসূত্রে তিনি শ্রীলংকান। নিজেই গান লেখেন, সুর করেন ও কণ্ঠ দেন। নিজের দেশে গান গেয়ে বেশ জনপ্রিয় ইয়োহানি।  সোশ্যাল মিডিয়ায় কল্যাণে ভাইরাল হয়ে গেছে তার গাওয়া গানটি। গানের একটি অর্থও জানা নেই। তবুও তার গানের ভিডিওতে মজেছে বাংলাদেশের নেটবাসী।

‘মানিকে মাগে হিতে’ শিরোনামের গানটি ইয়োহানি ডি সিলভা কে রাতারাতি সোশ্যাল মিডিয়ায় স্টার বানিয়ে দিয়েছে। ভারত, পাকিস্তানসহ আরও অনেক দেশেই পৌঁছে গেছে তার গানের এই ভিডিও। যেটি মুগ্ধতা ছড়িয়েছে। ওই গায়িকার গায়কীই মূলত তাকে আলোচনায় নিয়ে এসেছে। তার গাওয়া গানটি সিংহালী ভাষার। এরইমধ্যে এই গানের তামিল, মালয় ও বাংলা সংস্করণও বের হয়েছে। সেগুলোও বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। অনেক আগে থেকেই তিনি ইউটিউবে জনপ্রিয়। এছাড়া তার বাদ্যযন্ত্রের ব্যবসাও রয়েছে। বিদেশি বাদ্যযন্ত্র আমদানি করে শ্রীলংকায় বিক্রি করেন, আবার সেখানকার স্থানীয় বাদ্যযন্ত্র রফতানি করেন অন্য দেশে। ‘মানিকে মাগে হিতে’ গানটি তাকে নিজের দেশের বাইরেও তারকাখ্যাতি এনে দিলো। শ্রীলংকায় এখন তাকে ‘র্যাপ প্রিন্সেস’ বলা হচ্ছে। হু হু করে বাড়ছে তার সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টের ফলোয়ার সংখ্যা। ইউটিউবের সাবস্ক্রিবশন সংখ্যাও রাতারাতি বেড়ে এখন আকাশচুম্বী। ‘মানিকে মাগে হিতে’ লাইনটির বাংলা অর্থ হলো ‘তুমি আমার চোখের মণি’। এই গান প্রথমে গেয়েছিলেন শ্রীলংকার আরেক র্যাপার সথীশন রাথনায়কা। এরপর গত মে মাসে ইয়োহানির কণ্ঠে পুনরায় রেকর্ড করা হয়। এদিকে গানটি ভাইরাল হওয়ার পর বলিউড থেকেও নাকি ইয়োহানিকে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে শোনা যাচ্ছে।

গোলাম মোর্শেদ সীমান্ত 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

seven − one =