মারমা ভাষার ১ম চলচ্চিত্র ‘গিরিকন্যা’ মুক্তি পাচ্ছে

সেন্সর ছাড়পত্র পেয়েছে মারমা ভাষায় নির্মিত প্রথম চলচ্চিত্র ‘গিরিকন্যা’। আগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি (শুক্রবার) সন্ধ্যে ৬টায় এর উদ্বোধনী প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন-এর সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এবং আলোচক হিসেবে থাকবেন জহির রায়হান ফিল্ম ইন্সটিটিউটের সভাপতি নাট্যজন শংকর সাওজাল।

সেন্সর কপি হাতে নিয়েই নির্মাতা প্রদীপ ঘোষ বলেন, ‘আমাদের দেশে যে সকল ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠী আছে তাদের মাতৃভাষাকে শ্রদ্ধা ও সন্মান জানাতেই আমাদের এই কর্ম প্রয়াস। বাঙালি জাতি মায়ের ভাষার জন্য রাজপথে রক্ত দিয়ে প্রমান করেছে যে, সব মানুষের মাতৃভাষার অধিকার সমুন্নত রাখা রাষ্ট্রেরই দায়িত্ব। পাকিস্তানী শাষকেরা ভাষার প্রশ্নে যখন গুলি চালিয়েছে সে রক্ত স্রোত আজ বিশ্বের সকল প্রান্তে পৌছে গেছে। তাই আমাদের ভুখন্ডে যে সকল ভাষার অস্তিত্ব আছে সেই সব মানুষের মায়ের ভাষাকে সন্মান জানানোর জন্য এটি একটি উদ্যোগ মাত্র। শুধু তাই নয়, ক্ষুদ্র জাতিসত্তার মানুষের ভাষা বিলুপ্তির পথে। তাছাড়া এ ছবিটির কাহিনিতে স্থান পেয়েছে পরিবেশ রক্ষার প্রত্যয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘বান্দরবান পার্বত্য জেলার মারমা জনগোষ্ঠীর একজন প্রবীন চিকিৎসক ডা. মং উষা থোয়াই-এর গল্প অবলম্বনে নির্মিত এ চলচ্চিত্রটি দেশের সকল মানুষের কাছে গ্রহযোগ্য হবে বলে আমরা বিশ্বাস করি।’

সারাবাংলা

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

five + 16 =