মার্কিন কংগ্রেস সাহায্য বন্ধ রাখলে ইউক্রেন যুদ্ধ হারবে: জেলেনস্কি

প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির  জেলেনস্কি  রোববার বলেছেন, মার্কিন কংগ্রেস একটি বড় সামরিক সহায়তা প্যাকেজ অনুমোদন না দিলে, ইউক্রেন রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধে হেরে যাবে। রুশ বাহিনী একটি ফ্রন্টলাইন নগরীর উপর অভিযান জোরদার করেছে।

ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী জানায়, ফ্রন্টলাইন নগরী চসিভ ইয়ারের চারপাশে লড়াই কঠিন ও উত্তজেনাপূর্ণ হয়ে পড়েছে। রুশ সৈন্যরা সেখানে হামলা জোরদার করেছে আর ইউক্রেন সৈন্যরা  তা প্রতিরোধ করছে। খবর এএফপি’র।

উভয় পক্ষই বিমান হামলা জোরদার করেছে। রাশিয়া জানিয়েছে, ইউক্রেনের একটি ড্রোন জাপোরিঝিয়া পারমাণবিক কেন্দ্রে আঘাত করেছে। ২০২২ সালে আগ্রাসন শুরু করার পরপরই রুশ বাহিনী সেটি দখল করে।

কংগ্রেসে রিপাবলিকানরা কয়েক মাস ধরে কিয়েভের জন্য প্রস্তাবিত ৬০ বিলিয়ন ডলারের সামরিক সহায়তা আটকে দিয়েছে। ইউক্রেন জরুরি ভিত্তিতে প্যাকেজটি ছাড়ের জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে তাগিদ দিয়ে যাচ্ছে।

কিয়েভ-সংগঠিত তহবিল সংগ্রহের প্ল্যাটফর্ম ইউনাইটেড ২৪-এর ভিডিও মিটিং চলাকালীন  জেলেনস্কি বলেন, কংগ্রেসকে বিশেষভাবে বলা দরকার যে তারা ইউক্রেনকে সাহায্য না করলে, ইউক্রেন যুদ্ধে  হেরে যাবে।”

সাহায্য ছাড়া ইউক্রেনের পক্ষে টিকে থাকা কঠিন হবে উল্লেখ করে- জেলেনস্কি বলেন, “ইউক্রেন যুদ্ধে  হেরে  গেলে, অন্যান্য দেশও হামলার স্বীকার হবে।”

রাশিয়া সাম্প্রতিক মাসগুলিতে চাসিভ ইয়ারে আক্রমণ জোরদার করেছে। কর্তৃপক্ষ জানায়,  জাপোরিঝিয়ার দক্ষিণ অঞ্চলের গুলিয়াইপোলে রুশ হামলায় তিনজন নিহত হয়েছে।

অঞ্চলটির প্রধান ইভান ফেডোরভ সোশ্যাল মিডিয়ায় বলেছেন, “রুশ সৈন্যদের ছোড়া গোলার আঘাতে দুই পুরুষ ও এক নারী তাদের নিজের বাড়ির ধ্বংসস্তূপের নীচে চাপা পড়ে মারা গেছেন।”

কর্মকর্তারা  আরো বলেন, সাম্প্রতিক মাসগুলিতে রাশিয়ার ক্রমবর্ধমান হামলায় খারকিভের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় কুপিয়ানস্কের একটি অ্যাপার্টমেন্ট ব্লকে একজন নারী নিহত হয়েছে।

প্রধান নগরী খারকিভের কর্তৃপক্ষ জানায়, সেখানে রোববার রাশিয়ার হামলায় পাঁচ  বেসামরিক লোক আহত হয়। এর আগের দিনও সেখানে এক ভয়াবহ হামলা চালানো হয়।

রাশিয়া বলেছে, তারা তার  বেলগোরোদ ও ব্রায়ানস্ক সীমান্ত অঞ্চলে ১৫টি ইউক্রেনীয়  ড্রোন ধ্বংস করেছে। তারা সেখানে এক নারীর মৃত্যুর কথা জানায়।

বেলগোরোদের গভর্ণর ভ্যাচেস্তাভ গ্ল্যাডকভ বলেন, ইউক্রেন সীমান্ত থেকে প্রায় ৩৫ কিলোমিটার দূরে শাগারোভকা গ্রামের ভিতরে একটি পরিবারের একটি গাড়িতে বোমা নিক্ষেপ করা হলে এতে ঘটনাস্থলেই ওই নারীর মৃত্যু হয়। গাড়িটিতে ছয় আরোহী ছিল।

রুশ সেনাবাহিনী বলেছে, তারা বেলগোরোদ অঞ্চলে ১২টি ও ব্রায়ানস্কে তিনটি ইউক্রেনীয়  ড্রোন  ধ্বংস করেছে। অঞ্চল দুটি ইউক্রেনের নিয়মিত লক্ষ্যবস্তু।

রাশিয়া আরও বলেছে, ইউক্রেনের একটি  ড্রোন জাপোরিঝিয়া পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ছয়টি চুল্লির একটির গম্বুজকে আঘাত করে। তবে এতে সেখানে কোনো তেজস্ক্রিয় নিঃসরণ হয়নি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

19 + 18 =