মুক্তির আগেই সোশাল মিডিয়ায় সুইফটের নতুন অ্যালবাম

ঘোষণার এক বছরের বেশি সময় পর প্রকাশ হল মার্কিন পপ তারকা টেইলর সুইফটের ১১তম স্টুডিও অ্যালবাম ‘দ্য টর্চারড পোয়েটস ডিপার্টমেন্ট’। তবে অ্যালবামটি মুক্তির আগেই অনলাইনে ‘ফাঁস’ হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

সিএনএন লিখেছে, ‘দ্য টর্চারড পোয়েটস ডিপার্টমেন্ট’ প্রকাশ হয় শুক্রবার। কিন্তু আরও তিনদিন আগে থেকেই ১৭টি ট্র্যাক সম্বলিত গুগল ড্রাইভের একটি লিঙ্ক ঘুরছিল ইন্টারনেটে।

অ্যালবাম প্রকাশের আগেই গানের ফাঁসের ঘটনা নিয়ে সুইফট ভক্তদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় কেউ কেউ উচ্ছ্বসিত হয়েছেন। তবে বেশিরভাগ ভক্ত অনুরাগী বেজায় চটেছেন।

মাইক্রো ব্লগিং সাইট এক্সে একজন ক্ষোভ প্রকাশ করে লিখেছেন, “সুইফটের সত্যিকারের ভক্তরা হাত তুলে জানান যে আপনারা ফাঁস হওয়া লিংক থেকে প্রিয় শিল্পীর গান শুনবেন কি না।“

টেইলর ও তার টিম কঠোর পরিশ্রম করে যে অ্যালবামটা আনলেন, সেটির গান কেন সোশাল মিডিয়ায় আগে থেকে পাওয়া গেল, সে বিষয়টি খতিয়ে দেখার কথা বলেছেন অনেকে।

“এই অ্যালবাম প্রকাশের জন্য নিখুঁতভাবে অনেক পরিকল্পনা করেছেন সুইফট ও তার টিম। এভাবে গান ফাঁস হওয়া মানে তার কাজের প্রতি অসম্মান করা।”অনেকের ধারণা ফাঁস হওয়া গানগুলো এআই দিয়ে তৈরি।

“আমি ইন্টারনেটে সুইফটের গানগুলো পেয়েছি। কিন্তু শুনিনি, অফিসিয়াল রিলিজের পরই গানগুলো শুনলাম”, লিখেছেন এক ভক্ত।

সুইফট তার ইয়ারস ট্যুরের মাধ্যমে বিশ্বব্যাপী সাড়া তুলেছেন। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে বিশ্ব সংগীতের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ পুরস্কার ‘গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডসে’ টানা চতুর্থবারের মতো ‘অ্যালবাম অব দ্য ইয়ার’ জিতে ইতিহাস গড়েন সুইফট।

এছাড়া প্রথমবারের মত বিলিওনেয়ার ক্লাবে প্রবেশ করেছেন যু্ক্তরাষ্ট্রে জনপ্রিয় এই পপ তারকা।

গান ফাঁস নিয়ে সিএনএস সুইফটের প্রতিনিধির সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল, কিন্তু বিষয়টি তারা আনুষ্ঠানিক বক্তব্য দিতে রাজি নন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

twelve + 9 =