রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যাকে সংবর্ধনা দিল সংগীত সংগঠন সমন্বয় পরিষদ

ভারতের চতুর্থ সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মান ‘পদ্মশ্রী’ পদকের জন্য মনোনীত হওয়ায় বরেণ্য রবীন্দ্রসঙ্গীতশিল্পী ও সংগঠক রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যাকে সংবর্ধনা দিয়েছে বাংলাদেশ সংগীত সংগঠন সমন্বয় পরিষদ।

শনিবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সংগীত ও নৃত্যকলা কেন্দ্র মিলনায়তনে এই সংবর্ধনা অনুষ্ঠান হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন নাট্যজন আতাউর রহমান। অনুষ্ঠানে ফুল, ক্রেস্ট, উত্তরীয়সহ উপহার সামগ্রী তুলে দেয়া হয় বন্যার হাতে।

সংবর্ধনা দেয়ায় সংগীত সংগঠন সমন্বয় পরিষদকে ধন্যবাদ জানিয়ে বন্যা বলেন, “আমার গুরু কণিকা বন্দোপাধ্যায়ও এই সম্মান পেয়েছিলেন। আমিও তার মতো একই সম্মান পাওয়ায় নিজেকে ধন্য মনে করছি।” অপসংস্কৃতি রোধে সবাইকে আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, “আমি মনে করি, আমাদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে অপসংস্কৃতির বিস্তার প্রতিরোধ এবং সঠিক সুরে রবীন্দ্রসংগীত গাওয়াসহ সুস্থ সংস্কৃতি রক্ষায় ভূমিকা রাখা উচিৎ।”

এর আগে বন্যা মিলনায়তনে উপস্থিত হওয়ার পর তাকে ‘আগুনের পরশমনি ছোঁয়াও প্রাণে’ গানটি সমবেত কণ্ঠে গেয়ে মিলনায়তনের ভেতরে নিয়ে যান সংগীত সংগঠন সমন্বয় পরিষদের শিল্পীরা। এরপর ‘তুমি যে সুরের আগুন লাগিয়ে দিলে মোর প্রাণে’ এবং ‘আনন্দলোকে মঙ্গলালোকে’ গান দুটির সঙ্গে দলীয় নৃত্য পরিবেশনার মধ্য দিয়ে শিল্পীকে মঞ্চে নিয়ে যান ‘স্পন্দন’ এর নৃত্যশিল্পীরা।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ সংগীত সংগঠন সমন্বয় পরিষদের সভাপতি মাহমুদ সেলিম। উপস্থিত ছিলেন চ্যানেল আইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছ, বাংলাদেশ সংগীত সংগঠন সমন্বয় পরিষদের সহ-সভাপতি বিশ্বজিৎ রায় এবং সাধারণ সম্পাদক নারায়ণ চন্দ্র শীল। অনুষ্ঠানে দলীয় সঙ্গীত পরিবেশন করেন ‘সুরের ধারা’র শিল্পীরা। একক সঙ্গীত পরিবেশন করেন স্বাতী সরকার, মহাদেব ঘোষ, খন্দকার খায়রুজ্জামান কাইউম, পীযুষ বড়ুয়া ও অঞ্জনা সরকার মনি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

1 + ten =