শীর্ষস্থান হারালেন সাকিব, র‌্যাংকিংয়ে উন্নতি হৃদয়-তানজিদ-মুস্তাফিজের

আইসিসি টি-টোয়েন্টি র‌্যাংকিংয়ে অলরাউন্ডার তালিকায় শীর্ষস্থান হারালেন বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান। শ্রীলংকার অধিনায়ক ও স্পিনার হাসারাঙ্গা ডি সিলভার কাছে সিংহাসন হারিয়েছেন সাকিব।

গত ১৫ মে আইসিসির প্রকাশিত সর্বশেষ র‌্যাংকিংয়ে যৌথভাবে শীর্ষে ছিলেন সাকিব ও হাসারাঙ্গা। দু’জনেরই ২২৮ রেটিং ছিলো। কিন্তু সদ্য শেষ হওয়া যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজে ব্যাট-বল হাতে ভালো পারফরমেন্স করতে পারেননি সাকিব। ৩৬ রান করার পাশাপাশি মাত্র ১ উইকেট নেন তিনি।

এতে ৫ রেটিং হারিয়ে ২২৩ রেটিং নামের পাশে রেখে দ্বিতীয়স্থানে নেমে যান সাকিব। ২২৮ রেটিং নিয়ে শীর্ষেই আছেন হাসারাঙ্গা। আজ র‌্যাংকিংয়ের সাপ্তাহিক হালনাগাদ প্রকাশ করেছে আইসিসি।

ব্যাটিং-বোলিং র‌্যাংকিংয়ে উন্নতি হয়েছে বাংলাদেশের  তাওহিদ হৃদয়-তানজিদ হাসান এবং দুই বোলার মুস্তাফিজুর রহমান ও রিশাদ হোসেনের। র‌্যাংকিংয়ে অবনতি হয়েছে লিটন দাস ও নাজমুল হোসেন শান্তর।

১২ ধাপ উন্নতি হয়েছে হৃদয়ের। সদ্য যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের দুই ম্যাচে ব্যাট করে ৮৩ রান করেন তিনি। প্রথম ম্যাচে ৫৮ রানের দারুণ ইনিংসের পর দ্বিতীয় ম্যাচে ২৫ রান করে হৃদয়। এতে ক্যারিয়ার সেরা ৪৭৫ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে ৬০তমস্থানে উঠেছেন এই ডান-হাতি ব্যাটার।

যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে অপরাজিত ৫৮ রানের ইনিংস খেলে র‌্যাংকিংয়ে ৩৪ ধাপ এগিয়ে ৮৭তম স্থানে উঠেছেন ওপেনার তানজিদ।

ব্যাট হাতে সময়টা ভালো যাচ্ছে না লিটন দাসের। যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে ১৪ রান করার পর দল থেকে বাদ পড়েন তিনি। তৃতীয় ম্যাচে দলে ফিরলেও, ব্যাটিং করার সুযোগ পাননি তিনি। প্রথম ম্যাচের বাজে পারফরমেন্সে কারনে পাঁচ ধাপ পিছিয়ে ৫২১ রেটিং নিয়ে ৪০তমস্থানে আছেন লিটন। যা বাংলাদেশের পক্ষে ব্যাটার হিসেবে এই ফরম্যাটে সর্বোচ্চ র‌্যাংকিং।

লিটনের মত র‌্যাংকিংয়ে অবনতি হয়েছে শান্তরও। যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে সিরিজে দুই ইনিংসে মাত্র ৩৯ রান করায় চার ধাপ পিছিয়ে ৫১৪ রেটিং নিয়ে ৪৫তমস্থানে আছেন শান্ত। এছাড়া সাকিব তিন ধাপ এবং মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ দুই ধাপ পিছিয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে সিরিজে ১০ উইকেট নেন বাংলাদেশের পেসার মুস্তাফিজ। শেষ ম্যাচে ১০ রানে ৬ উইকেট নেন তিনি। এতে দুই ধাপ এগিয়ে ৫৮৩ রেটিং নিয়ে ২৩তমস্থানে আছেন ফিজ। বাংলাদেশী বোলারদের মধ্যে সেরা অবস্থানে আছেন কাটার মাস্টার।

মুস্তাফিজের পর যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে সিরিজে দারুন বোলিং করেছেন রিশাদ। ৪ দশমিক ৪০ ইকোনমিতে ৪৪ রানে ৪ উইকেট নিয়েছেন তিনি। যার সুবাদে ৩৮ ধাপ এগিয়ে ৪৭৩ রেটিং নিয়ে ৫২তমস্থানে উঠেছেন রিশাদ।

এদিকে, পাকিস্তানের বিপক্ষে চার টি-টোয়েন্টি সিরিজে দ্বিতীয় ম্যাচে ৮৪ রানের ম্যাচ জয়ী ইনিংস খেলার সুবাদে ব্যাটিং র‌্যাংকিংয়ে এক ধাপ এগিয়ে সপ্তমস্থানে উঠেছেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক জশ বাটলার।  ম্যাচে পাকিস্তানের হয়ে ২১ বলে ৪৫ রানের ইনিংস খেলেছেন ব্যাটার ফখর জামান। যার স্বীকৃতি হিসেবে ছয় ধাপ এগিয়ে ৫১ নম্বরে জায়গা করে নিয়েছেন ফখর।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে পাকিস্তানের সফল বোলার ছিলেন শাহিন শাহ আফ্রিদি। ৩ উইকেট নিয়ে তিন ধাপ এগিয়ে যৌথভাবে ১২তম স্থানে আছেন শাহিন।

সদ্য শেষ হওয়া দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে সর্বোচ্চ ১৫৯ রান করেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক ব্রান্ডন কিং। এতে পাঁচ ধাপ এগিয়ে ব্যাুিটং তালিকায় আট নম্বরে উঠেছেন তিনি।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজের শেষ ম্যাচে ৬৯ রান করেন জনসন চার্লস। তার ব্যাটিং দৃঢ়তায় প্রোটিয়াদের হোয়াইটওয়াশ করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। র‌্যাংকিংয়ে ১৭ ধাপ এগিয়ে ২০তমস্থানে উঠেন চার্লস।

বাসস

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

four − one =