সাকিবের অলরাউন্ড নৈপুণ্যে টেবিলের শীর্ষে রংপুর

ঢাকা, ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ (বাসস): সাকিব আল হাসানের অলরাউন্ড নৈপুণ্যে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে টেবিলের শীর্ষেই থাকলো রংপুর রাইডার্স। আজ নিজেদের সপ্তম ম্যাচে রংপুর ৬০ রানে হারিয়েছে দুর্দান্ত ঢাকাকে। ব্যাট হাতে ২০ বলে ৩৪ রানের পর বোলিংয়ে ১৬ রানে ৩ উইকেট নেন ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হওয়া  সাকিব। ৭ ম্যাচে ৫ জয় ও ২ হারে ১০ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে আছে রংপুর। ৫ ম্যাচে ৮ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয়স্থানে আছে খুলনা টাইগার্স। প্রথম ম্যাচ জয়ের পর টানা পঞ্চম ম্যাচ হেরে ৬ খেলায় ২ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তলানিতে নেমে গেল ঢাকা।

মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দিনের প্রথম ম্যাচে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নামা রংপুরকে ৪৬ বলে ৬৭ রানের সূচনা এনে দেন দুই ওপেনার রনি তালুকদার ও পাকিস্তানের বাবর আজম। অষ্টম ওভারে রনিকে লেগ বিফোর আউট করে ঢাকাকে প্রথম সাফল্য এনে দেন স্পিনার আরাফাত সানি। আউট হওয়ার আগে ৬টি চার ও ১টি ছক্কায় ২৪ বলে ৩৯ রান করেন রনি।

রনির পর দ্বিতীয় উইকেটে সাকিবের সাথেও হাফ-সেঞ্চুরির জুটি গড়েন বাবর। জুটিতে ৩৯ বলে ৫২ রান যোগ করে ১৫তম ওভারে ঢাকার অধিনায়ক ও স্পিনার মোসাদ্দেক হোসেনের বলে আউট হন বাবর। ৫টি চারে ৪৩ বলে ৪৭ রান করেন তিনি।

নিজের ইনিংসের শুরুতে সাবধানী থাকলেও, পরের দিকে মারমুখী হন সাকিব। শ্রীলংকার চাতুরাঙ্গা ডি সিলভার করা ১৪তম ওভারের প্রথম দু’বলে ছক্কা মারেন একবার জীবন পাওয়া সাকিব। তবে বাবরের ফেরার ওভারেই মোসাদ্দেকের শিকার হন ১টি চার ও ৩টি ছক্কায় ২০ বলে ৩৪ রান করা সাকিব।

রংপুর ইনিংসের শেষ দিকে ব্যাট হাতে ঝড় তুলে ২২ বলে অবিচ্ছিন্ন ৪৪ রানের জুটি গড়েন অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহান ও আফগানিস্তানের মোহাম্মদ নবি। এতে ৪ উইকেটে ১৭৫ রানের চ্যালেঞ্জিং সংগ্রহ পায় রংপুর।

১টি করে চার-ছক্কায় ১০ বলে অপরাজিত ১৬ রান করেন সোহান। ৩টি ছক্কায় ১৬ বলে অনবদ্য ২৯ রান করেন নবি। ঢাকার মোসাদ্দেক নেন ২ উইকেট।

১৭৬ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে শুরুতেই রংপুরের স্পিনার মাহেদি হাসানের তোপে দলীয় ৪ রানেই ২ উইকেট হারায় ঢাকা। সাব্বির হোসেনকে ১ ও পাকিস্তানের সাইম আইয়ুবকে ২ রানে শিকার করেন মাহেদি।

শুরুর ধাক্কা সামলে উঠতে অন্যপ্রান্তে আগ্রাসী ছিলেন ওপেনার মোহাম্মদ নাইম। ৩টি করে চার-ছক্কায় ৩১ বলে ৪৪ রান তুলে পাকিস্তানী  পেসার সালমান এরশাদের বলে আউট হন নাইম।

দলীয় ৫৭ রানে নাইম ফেরার পর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে ১২ বল বাকী থাকতে ১১৫ রানে অলআউট হয় ঢাকা। নাইমের পর উইকেটরক্ষক ইরফান শুক্কুর ২১, তাসকিন আহমেদ ১৫ রান করেন। রংপুরের সাকিব ৪ ওভারে ১৬ রানে ৩ উইকেট নেন। ২টি করে উইকেট শিকার করেন মাহেদি-এরশাদ ও হাসান।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

five × 1 =