১৭ বছর পর সিনেমায় ফিরছেন শাওন

নতুন কুঁড়ি দিয়ে মিডিয়ায় পথচলা শুরু মেহের আফরোজ শাওনের। হ‌ুমায়ূন আহমেদের নাটকে অভিনয় করে পরিচিতি পান তিনি। একসময় হ‌ুমায়ূন আহমেদের নাটক মানেই ছিল শাওনের উপস্থিতি। অভিনয় করেছেন এই নির্মাতার সিনেমাতেও। একসঙ্গে কাজ করার সুবাদে একে অপরের প্রেমে পড়ে ঘর বাঁধেন হ‌ুমায়ূন ও শাওন। বিয়ের পর সংসার ও সন্তানদের সময় দিতে অভিনয় কমিয়ে দেন শাওন। ২০১২ সালে হ‌ুমায়ূন আহমেদের প্রয়াণের পর আর অভিনয়ে দেখা যায়নি তাঁকে। মাঝে মাঝে গানে পাওয়া গেলেও অভিনয়ে আড়ালেই থেকেছেন। অবশেষে দীর্ঘ বিরতি ভেঙে ১৭ বছর পর সিনেমায় ফিরছেন তিনি। ফাখরুল আরেফীন খানের ‘নীল জোছনা’ নামের সিনেমায় অভিনয় করবেন শাওন।

নীল জোছনা সিনেমায় অভিনয়ের বিষয়টি আজকের পত্রিকাকে নিশ্চিত করেছেন শাওন। অভিনেত্রী জানালেন, দীর্ঘ ১৭ বছর পর সিনেমায় অভিনয় করছেন তিনি। সর্বশেষ ২০০৭ সালে হ‌ুমায়ূন আহমেদের ‘আমার আছে জল’ সিনেমার শুটিং করেছিলেন। সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছিল ২০০৮ সালে।

নতুন সিনেমা নিয়ে শাওন বলেন, ‘প্যারাসাইকোলজি বিষয় নিয়ে নির্মিত হচ্ছে নীল জোছনা। এতে আমাকে শহুরে এক নারীর চরিত্রে দেখা যাবে। গল্প ও চরিত্র পছন্দ হওয়ায় কাজটির সঙ্গে যুক্ত হওয়া। দীর্ঘদিন পর সিনেমার শুটিং করব। তবে প্রযোজক ও পরিচালকের পলিসিগত কারণে এখনই সিনেমা কিংবা আমার অভিনীত চরিত্রটি নিয়ে বিস্তারিত বলতে চাইছি না।’

শাওন জানান, ১৭ বছর পর সিনেমায় নাম লেখালেও অভিনয়ে ফিরলেন ১৩ বছর পর। ২০১১ সালে সবশেষ অভিনয় করেছিলেন ‘স্বর্ণকলস’ নাটকে। নাটকটি রচনা ও পরিচালনা করেছেন হ‌ুমায়ূন আহমেদ। আগামীকাল ঢাকায় নীল জোছনা সিনেমায় নিজের অংশের শুটিংয়ে অংশ নেবেন শাওন। সিনেমাটি তৈরি হচ্ছে মোশতাক আহমেদের প্যারাসাইকোলজি-বিষয়ক উপন্যাস ‘নীল জোছনার জীবন’ অবলম্বনে। শাওনসহ এই সিনেমার বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেন তারিক আনাম খান, ইন্তেখাব দিনার, পার্থ বড়ুয়া, এস এম নাঈম প্রমুখ। আরও আছেন পশ্চিমবঙ্গের অভিনেত্রী পাওলি দাম।

নীল জোছনা নির্মাতা ফাখরুল আরেফীনের চতুর্থ সিনেমা। এর আগে তিনি বানিয়েছেন ‘ভুবন মাঝি’, ‘গণ্ডি’ ও ‘জেকে ১৯৭১’।

নতুন সিনেমা নিয়ে ফাখরুল আরেফীন খান বলেন, ‘নীল জোছনা সিনেমার কাজ শুরু করেছিলাম প্রায় ছয় বছর আগে; ২০১৮ সালের শেষের দিকে। আমার জানামতে, প্যারাসাইকোলজি নিয়ে এর আগে বাংলাদেশে কোনো কাজ হয়নি। আর সে কারণেই মোশতাক আহমেদের উপন্যাসটি পড়ার পর সিদ্ধান্ত নিই সিনেমা বানানোর।’

ইবনে মিজানের ‘আলাল দুলাল’-এ শিশুশিল্পী হিসেবে সিনেমায় প্রথম অভিনয় করেন শাওন। নায়িকা হিসেবে শাওনের প্রথম সিনেমা হুমায়ূন আহমেদের ‘শ্রাবণ মেঘের দিন’। অভিনয় করেছেন ‘দুই দুয়ারী’, ‘চন্দ্রকথা’, ‘শ্যামল ছায়া’ ও ‘আমার আছে জল’ সিনেমায়। এরপর অভিনয় না করলেও পরিচালনা করেছেন তিনি। ২০১৬ সালে মুক্তি পায় শাওন পরিচালিত একমাত্র সিনেমা ‘কৃষ্ণপক্ষ’।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

seven + seventeen =