সিলেটকে ৮৫ রানে অলআউট করে শীর্ষে উঠল রংপুর

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) আগের সংস্করণেও ২০০ বা তার বেশি রানের কয়েকটি স্কোর হয়েছে সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে। এবারও প্রত্যাশা ছিল সিলেট পর্বে রানের ফুলঝুরি দেখবেন সমর্থকেরা। তবে সব আশায় গুড়ে বালি। বিপিএলের এবারের আসরে উল্টো সিলেটে এবার তিনটি স্কোর রয়েছে ১০০ রানের নিচে।

সিলেটকে নিয়ে স্থানীয় সমর্থকদের আগ্রহ ছিল অনেক বেশি। কিন্তু তারাই দুই ম্যাচে অলআউট হয়েছে এক শ’ রানের নিচে। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের বিপক্ষে এক ম্যাচে গুটিয়ে যায় ৭৮ রানে। আজ রংপুর রাইডার্সের দেওয়া ১৬৩ রানের লক্ষ্য তাড়ায় নেমে তারা অলআউট হলো ৮৫ রানে। ৭ ম্যাচের মধ্যে ষষ্ঠ হার দেখল সিলেট স্ট্রাইকার্স।

সাকিব আল হাসান-শেখ মেহেদী হাসানদের ঘূর্ণি জাদুতে রংপুর পেল ৭৭ রানের দারুণ জয়। সিলেটের হয়ে সর্বোচ্চ ৩২ বলে ৪৩ রানের ইনিংস খেলেছেন রায়ান বার্ল। মেহেদী ৩টি, সাকিব নিয়েছেন ২টি উইকেট।

টস জিতে সিলেটের অধিনায়ক মোহাম্মদ মিঠুনের আমন্ত্রণে আগে ব্যাট করতে নামা রংপুর রাইডার্স স্কোরবোর্ডে জমা করে ১৬২ রান। দুই ম্যাচ পর ব্যাট করতে নেমে সাকিব পেলেন গোল্ডেন ডাক আর ফিফটির আক্ষেপ নিয়ে ফিরেছেন বাবর আজম ও অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহান।

ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে বোলিং আক্রমণে এসেই ব্রেন্ডন কিংকে (১) বোল্ড করেছেন সামিত প্যাটেল। তিন নম্বরে নেমে ফজলে মাহমুদ রাব্বিকে নিয়ে পালটা আক্রমণ চালান আরেক ওপেনার বাবর। তবে শুরুর ধাক্কা তারা সামলে নিলেও রানের গতি বাড়াতে পারছিলেন না তাঁরা। নবম ওভারে রাব্বিকে ফিরিয়ে ৫১ রানের জুটি ভেঙে সিলেটকে ব্রেকথ্রু এনে দেন হ্যারি টেক্টর। বাউন্ডারির জন্য হাঁসফাঁস করে ২১ বলে ১৪ রানে আউট হন এই বাঁহাতি ব্যাটার।

সাকিব দুই ম্যাচ পর আজ নামেন ব্যাট হাতে। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে প্রথম বলেই এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়েন। আম্পায়ার আঙুল উঁচিয়ে আউট জানালে সাকিব প্রথমে রিভিউ নেওয়ার কথা না ভেবেই ফিরে যেতে চেয়েছিলেন। পরে বাবরের সঙ্গে দীর্ঘ আলোচনার পর যখন রিভিউ নেওয়ার চ্যালেঞ্জ জানালেন, তখন অনফিল্ড আম্পায়ার জানান নির্ধারিত ১৫ সেকেন্ড সময় শেষ হয়ে গেছে এর আগেই। সাকিবের পর ৩ রানের জন্য ফিফটি না পাওয়ার আক্ষেপ নিয়ে ফেরেন বাবর। প্যাটেলের হাতেই বিদায় ঘটে রংপুরের দুই ওপেনারের। ৮৮ রানে ৪ উইকেট হারানো রংপুরকে এরপর টেনে নিয়ে যান অধিনায়ক সোহান ও আজমতউল্লাহ ওমরজাই।

এ জয়ে ৬ ম্যাচে ৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে উঠে সিলেট পর্ব শেষ করল রংপুর। সিলেট ৭ ম্যাচে মাত্র ১ জয়ে ২ পয়েন্ট নিয়ে নেমে গেছে তলানিতে।

বরাবরের মতোই ব্যাট হাতে ঝোড়ো ইনিংস খেলার চেষ্টা করেন ওমরজাই। ইনিংসের ১৬ তম ওভারে আরিফুল হকের প্রথম পাঁচ বলে ১৭ রান নিয়ে শেষ বলে ক্যাচ তুলে বিদায় নেন আফগান অলরাউন্ডার। ফেরার আগে ১৪ বলে করেন ২২ রান। তবে সোহানের ঝড় চলতে থাকে আরও কিছুক্ষণ। ৩০ বলে সোহানের রান যখন ৪৬, পুড়েছেন বাবরের মতোই ফিফটি হাতছাড়ার আক্ষেপে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

eleven + eleven =