সুচিত্রা সেন চলচ্চিত্র উৎসব: দেখা হলো তিন বন্ধুর

২০ ও ২১ এপ্রিল নিউইয়র্কের জ্যামাইকা পারফর্মিং আর্টস সেন্টারে হয়ে গেল দুই দিনব্যাপী সুচিত্রা সেন আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। ভারত ও বাংলাদেশের মোট ৩৯টি সিনেমা প্রদর্শিত হয়েছে উৎসবে। সাংবাদিক হাসানুজ্জামান সাকীর উদ্যোগে এবং আকাশ ও শাহনেওয়াজের সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত উৎসবে অংশ নিয়েছেন দুই দেশের অর্ধশত অভিনয়শিল্পী, নির্মাতা, প্রযোজক ও কলাকুশলী।

উৎসবে দেখা হয়েছিল শোবিজের তিন বন্ধু—ফেরদৌস, চিত্রনায়িকা মৌসুমী ও কলকাতার ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তর। পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে আগেই যুক্তরাষ্ট্রে গিয়েছিলেন মৌসুমী। উৎসবে তিনি ও ফেরদৌস গিয়েছিলেন অতিথি হিসেবে। অন্যদিকে ঋতুপর্ণা ছিলেন উৎসবের শুভেচ্ছাদূত। তিন বন্ধুর দেখা হওয়ার মুহূর্তটা ভীষণ উপভোগ করেছেন তাঁরা।

উৎসবে ফেরদৌসের ‘মাইক’ ও ‘১৯৭১ সেইসব দিন’ সিনেমা প্রদর্শিত হয়। ফেরদৌসের অংশ নেওয়ার খবরটি আগেই জেনেছিলেন মৌসুমী। তাই লং আইল্যান্ডের বাসায় তাঁকে নিমন্ত্রণ করেছিলেন মৌসুমী। গত শনিবার সন্ধ্যায় তাঁর আতিথেয়তা গ্রহণ করেন ফেরদৌস।

মৌসুমীর নিজ হাতের রান্না খাওয়ার পাশাপাশি দারুণ এক সন্ধ্যা কাটিয়েছেন দুই বন্ধু। সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে ফেরদৌস লিখেছেন, ‘মৌসুমী আমার প্রিয় মানুষ এবং ভীষণ কাছের একজন। অনেক দিন পর সেই মানুষটার সঙ্গে দেখা। কী যে ভালো লেগেছে, কী যে অসাধারণ সময় কেটেছে—লিখে বোঝাতে পারব না। মৌসুমী নিজ হাতে রান্না করেছে। ….আমার এই নতুন জীবন (সংসদ সদস্য) নিয়ে মৌসুমীর কত কথা, কত প্রশ্ন, কত যে আগ্রহ! গাড়িতে উঠে অনেক দূর এগিয়ে পেছনে ফিরে দেখি, প্রচণ্ড শীত উপেক্ষা করে তাকিয়ে আছে সে। এই সম্পর্কগুলো অটুট, এই বন্ধনগুলো দৃঢ়, এই স্মৃতিগুলো অমলিন।’

উৎসব নিয়ে ফেরদৌস বলেন, ‘প্রথমবার হিসেবে আয়োজকেরা শতভাগ সফল। দুই দিনব্যাপী এই উৎসবে সবার অংশগ্রহণ ছিল চোখে পড়ার মতো। মনে হচ্ছে, ভবিষ্যতে আরও বড় পরিসরে এই উৎসব করা যাবে।’

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

4 × 3 =