সুনিধির প্রথম গানের অ্যালবাম প্রকাশ ফেব্রুয়ারিতে

গত মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সুনিধি জানালেন, অ্যালবামটির শিরোনাম ‘আড়ালে’। আগামী ২ ফেব্রুয়ারি প্রকাশ পাচ্ছে একই নামের গানটি। সংগীতশিল্পী শায়ান চৌধুরী অর্ণবের জীবনসঙ্গী হওয়ায় এখন সুনিধি বাংলাদেশেই থাকেন। গত বছরেই তিনি জানিয়েছিলেন, মৌলিক গানের অ্যালবাম নিয়ে কাজ করছেন। এবার সুনিধির সেই অ্যালবামটিই প্রকাশ পেতে যাচ্ছে।

অ্যালবামটি সাজানো হয়েছে পাঁচটি গানে। শিল্পীর ইউটিউব চ্যানেল, স্পটিফাই, আমাজন মিউজিক, অ্যাপল মিউজিক, আইটিউনসহ বিভিন্ন অডিও প্ল্যাটফর্মে শোনা যাবে গানগুলো। সুনিধি জানান, প্রথম গান প্রকাশের এক সপ্তাহ পরপর আসবে বাকি ৪টি গান। কণ্ঠ দেওয়ার পাশাপাশি তিনটি গানের সুরও করেছেন সুনিধি। এ ছাড়া গান লেখা ও সংগীতায়োজনে যুক্ত ছিলেন তার শান্তিনিকেতনের কয়েকজন বন্ধু।

গণমাধ্যমে সুনিধি বলেন, ‘অনেক বছর ধরে ইচ্ছা ছিল নিজের মৌলিক গানের অ্যালবাম করার। আমি ইতিমধ্যে রবীন্দ্রসংগীতের একটি অ্যালবাম রেডি করে রেখেছি। কিন্তু চেয়েছিলাম প্রথম অ্যালবামটি মৌলিক গান নিয়ে করতে। সে কারণে অপেক্ষা করেছি। আড়ালে অ্যালবামের প্রতিটি গান তৈরির অভিজ্ঞতা আমার সারা জীবন মনে থাকবে। দেড় বছর ধরে আড়ালে অ্যালবাম নিয়ে কাজ করছি আমরা। অ্যালবামে ৫টি গান পাঁচ রকমের হয়েছে। যে সময়ের মধ্য দিয়ে আমার জীবনযাপন, সে সময়টাকে গানের মধ্য দিয়ে ধরতে চেয়েছি।’

ভারতের আসানসোলের মেয়ে সুনিধি নায়েক। রবীন্দ্রসংগীতশিল্পী হিসেবেই তিনি পরিচিত। শাস্ত্রীয় সংগীতেও তার দক্ষতা রয়েছে। বাংলাদেশের শ্রোতাদের কাছেও জনপ্রিয় তিনি। বিশেষ করে কোক স্টুডিও বাংলার ‘সন্ধ্যাতারা’ গানটির সুবাদে এই পরিচিতি আরও বেড়েছে।

সুনিধি রবীন্দ্রসংগীতের পাঠ নিয়েছেন বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে। পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তীসহ বেশ কয়েকজন ওস্তাদের কাছে দেড় যুগের বেশি সময় ধরে শিখেছেন শাস্ত্রীয় সংগীত। ‘ছায়া ঘনাইছে বনে বনে’, ‘আমি রূপে তোমায় ভোলাব না’, ‘বহে নিরন্তর অনন্ত আনন্দধারা’, ‘এই তো তোমার আলোকধেনু’, ‘ও যে মানে না মানা’, ‘যদি তারে নাই চিনি’র মতো রবীন্দ্রসংগীত গেয়ে প্রশংসা পেয়েছেন তিনি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

fourteen − 3 =