৫০ ভাগ দর্শক নিয়ে হবে কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসব

কড়া বিধিনিষেধের মধ্যে নির্ধারিত সময়েই অনুষ্ঠিত হবে ২৭ তম আন্তর্জাতিক কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসব। তবে এবার সিনেমা হলে ৫০ শতাংশ দর্শক প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে।মঙ্গলবার প্রকাশিত হলো কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবের সিনেমার সূচি। এবারের চলচ্চিত্র উৎসবে শ্রদ্ধা জানানো হবে প্রবাদপ্রতিম পরিচালক সত্যজিৎ রায়, কিংবদন্তি পরিচালক চিদানন্দ দাশগুপ্ত ও বিখ্যাত বিদেশি পরিচালক মিকলোস জ্যাসোঁকে।

ভারতে হু হু করে বাড়ছে সংক্রমণ। আর তারই প্রভাব পড়তে চলেছে এবারের কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে। নতুন বছরের ৭ জানুয়ারি নজরুল মঞ্চের বদলে এবার নবান্ন সভাগৃহ থেকে চলচ্চিত্র উৎসবের ভার্চুয়াল উদ্বোধন হবে। উৎসবের চেয়ারপার্সন তথা পরিচালক রাজ চক্রবর্তী আগেই জানিয়েছিলেন, মহামারির কথা মাথায় রেখে ভার্চুয়ালি উদ্বোধন হওয়ার সিদ্ধান্তই নেওয়া হয়েছে। আগে ঠিক ছিল নজরুল মঞ্চে হবে, সেভাবেই সমস্ত আয়োজন করা হচ্ছিল। কিন্তু এখন নবান্ন সভাগৃহ থেকেই ভার্চুয়াল উদ্বোধন হবে। তবে ঠিক কী কী হবে, কারা উপস্থিত থাকবেন, তা এখনও ঠিক হয়নি। এসব আলোচনার জন্য বৈঠক হবে।

চলচ্চিত্র উৎসবের সূচি প্রকাশ করে অভিনেতা পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় জানান, শতবর্ষে সত্যজিৎ রায়কে শুভেচ্ছা জানিয়ে তার পরিচালিত চারটি ছবি দেখানো হবে উৎসবে। পথের পাঁচালি, নায়ক, শতরঞ্জ কে খিলাড়ি ও পরশপাথর। পাশাপাশি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করা হবে পরিচালক চিদানন্দ দাশগুপ্তকেও। মিকলোস জ্যাসোঁর ইলেক্ট্রা মাই লাভ ছবিটিও প্রদর্শিত হবে। এবারের উৎসব সম্মান জানাবে বিনোদুনিয়ার সদ্য প্রয়াত কিংবদন্তিদের। পরিচালক বুদ্ধদেব দাশগুপ্তর উত্তরা, আজিব কিস্সা, প্রয়াত অভিনেতা দিলীপ কুমারের মুঘল ই আজম, মধুমতীসহ বেশ কয়েকটি ছবি প্রদর্শিত হবে। শ্রদ্ধা জানানো হবে প্রয়াত অভিনেত্রী স্বাতীলেখা সেনগুপ্তকে। সাত দিনে মোট ১৬০টি সিনেমার ২০০টি শো হবে।

করোনাবিধি মেনে এবার উৎসবে শামিল হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন আয়োজকরা। ৫০ শতাংশ দর্শক কবে থেকে কীভাবে টিকিট বুক করতে পারবেন, তা শীঘ্রই জানানো হবে।

ঢাকা পোস্ট

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

19 − 17 =