৬ মাস টি-টোয়েন্টি খেলবেন না তামিম

আগামী ৬ মাস আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট খেলবেন না বলে ঘোষণা দিয়েছেন ওয়ানডে দলের অধিনায়ক তামিম ইকবাল। বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন তিনি।

তামিম ইকবাল টি-টোয়েন্টি খেলবেন কী খেলবেন না, এ নিয়ে গত কয়েকদিন বেশ আলোচনার জন্ম দিয়েছে বাংলাদেশের ক্রিকেটে। তামিমের সঙ্গে আলোচনা করছেন বিসিবি সভাপতি এবং অন্য কর্মকর্তারা।

অবশেষে আজ মিডিয়ার মুখোমুখি হয়েছেন তামিম। সেখানে তিনি বলেন, ‘গত কয়েকদিন ধরে বোর্ডের অনেকের সঙ্গে, বিসিবি সভাপতি এবং ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির প্রধান জালাল ইউনুস ভাই, কাজী ইনাম ভাইযের সঙ্গে মিটিং হয়েছে, কথাবার্তা হয়েছে। তারা চাচ্ছেন আমি টি-টোয়েন্টি কন্টিনিউ করি। অন্তত বিশ্বকাপ পর্যন্ত। তবে, আমার বক্তব্যটা ভিন্নরকম ছিল।’

‘তবে দুই পক্ষের কথা-বার্তা শেষে বেস্ট পসেবল আউটকাম যেটা এসেছে, সেটা হলো আগামী ৬ মাস ইন্টারন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট কনসিডার করছি না। এই ৬ মাসে আমার পুরোপুরি মনযোগ থাকবে টেস্ট এবং ওয়ানডেতে। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ আছে, ২০২৩ বিশ্বকাপ আছে, সে জন্য প্রিপারেশনের ব্যাপার আছে। সে কারণে আমার পুরোপুরি ফোকাসটা থাকবে এই দুই ফরম্যাটের ওপর।’

‘টি-টোয়েন্টির বিষয়টা হলো, ৬ মাস ইন্টারন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি নিয়ে কোনো কিছুই ভাববো না। আর আশা এটাই করবো যে, এ ৬ মাসে আমাদের ইয়াং ছেলেরা খেলবে বা বাংলাদেশ টিম টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট খেলবে, তারা এতই ভালো করবে যে, আমার আর প্রয়োজন পড়বে না ইন্টারন্যাশনাল টি-টোয়েন্টিতে।’

৬ মাস পর কী হবে সেটাও জানিয়েছেন তামিম। তিনি বলেন, ‘৬ মাস পর যদি এমন একটা সময় আসে যে- ক্রিকেট বোর্ড, সিলেক্টর্স বা টিম ম্যানেজমেন্ট মনে করলো যে না আমার দরকার আছে বিশ্বকাপের আগে, তখন প্রয়োজন হলে এবং আমিও যদি রেডি থাকি, তখন এটা নিয়ে আমরা আলোচনা করবো। সুতরাং, পরবর্তী ৬ মাস আমি টি-টোয়েন্টি নিয়ে কোনোভাবেই কোনো কিছু ভাবছি না। আবারও বলছি, আমার পুরোপুরি বিশ্বাস এই ৬ মাসে যে টিমটা টি-টোয়েন্টি খেলবে বা যেসব খেলোয়াড়রা আমার জায়গায় খেলবে, তারা এতই ভালো খেলবে যে আমার আর দরকার পড়বে না।’

জাগো নিউজ

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

fifteen − ten =