ব্রাজিলের বড় জয়, কোয়ার্টার নিশ্চিত করলো কলম্বিয়া

ভিনিসিয়াস জুনিয়রের দুই গোলে লাস ভেগাসে শনিবার প্যারাগুয়েকে ৪-১ গোলে বিধ্বস্ত করে কোপা আমেরিকায় জয়ে ফিরেছে ব্রাজিল। ম্যাচ শেষে প্রিয় শিষ্যের ভুয়ষী প্রশংসা করেছেন ব্রাজিল কোচ ডোরিভাল জুনিয়র।

এর আগে সোমবার কোস্টা রিকার সাথে গোলশুন্য ড্র দিয়ে আসর শুরু করেছিল ব্রাজিল। এই ম্যাচের পর ব্রাজিল ও ভিনিসিয়াসকে জুড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনার ঝড় ওঠে। ভিনিসিয়াসকে নিয়ে এমনও আলোচনা হয়েছে ক্লাব ফুটবলে এতটা সফল খেলোয়াড় জাতীয় দলে এসে কেন বারবার হোঁচট খায়। প্রথম ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদ তারকা ভিনি টার্গেটে একটি শটও করতে পারেননি। যে কারনে দ্বিতীয়ার্ধের মাঝামাঝিতে তাকে মাঠ থেকে উঠিয়ে নেন ডোরিভাল।

কিন্তু প্যারাগুয়ের বিপক্ষে সব সমালোচনার জবাব একাই দিয়েছেন ভিনিসিয়াস। ৩৫ মিনিটে লুকাস পাকুয়েটার এ্যাসিস্টে লো ফিনিশে তিনি ব্রাজিলকে এগিয়ে দেন। ৪৩ মিনিটে সাভিও ব্যবধান দ্বিগুন করেন। প্রথমার্ধের ইনজুরি টাইমে নিজের দ্বিতীয় গোল করে ব্রাজিলকে বড় জয়ের আভাস দিতে থাকেন ভিনি। প্যারাগুয়ে ডিফেন্ডার ওমর অলডারেটকে কাটিয়ে দারুন এক গোলে ভিনি ব্যবধান ৩-০’তে নিয়ে যান। ৬৫ মিনিটে হ্যাটট্রিকের সুযোগ পেয়েছিলেন রিয়াল মাদ্রিদ তারকা। কিন্তু প্রথমার্ধে পেনাল্টির সুযোগ মিস করা পাকুয়েটার কাঁধেই আবারো সেই ভাল তুলে দেন ভিনি। স্পট কিক থেকে এবার আর কোন ভুল করেননি পাকুয়েটা।

ব্রাজিল কোচ ডোরিভাল ম্যাচ শেষে ভিনিসিয়াস সম্পর্কে বলেছেন, ‘আজ সে প্রায় নিখুঁত একটা ম্যাচ খেলেছে। মাঠে সে দুর্দান্ত ছিল।’ ২০২২ বিশ্বকাপে দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে গোল করার পর এই প্রথম পেনাল্টির বাইরে কোন গোল পেলেন ভিনিসিয়াস। এছাড়া ক্যারিয়ারের ৩২তম ম্যাচে এসে তিনি জোড়া গোলের দেখা পেলেন।

ভিনিসিয়াস বলেছেন, ‘আমি সবসময়ই বলি কখনই আমি নিজের জন্য খেলিনা। আমি সবসময় দলের জন্য খেলি। আর যখন ব্রাজিলের হয়ে খেলি তখন দেশের জন্য খেলি। আমি সবসময় নিজের সেরাটা দিতেই মাঠে নামি। কিন্তু মাঝে মাঝে সবকিছু সম্ভব হয়না। আমি যে মানের খেলোয়াড় আজ সেটার অনেকটাই প্রমান করেছি। আমি জানি ব্রাজিলিয়ান দলে উন্নতির সুযোগ সবসময় থাকে। প্রতিদিনই এই দলটি কঠোর পরিশ্রম করছে। ব্রাজিল দলে যা প্রাপ্য সেটা আমাদের সবাইকে দিতে হবে। এই লক্ষ্য পূরণে, কোপা আমেরিকার শিরোপা জয়ে আমাদের পরিশ্রম চালিয়ে যেতে হবে। ’

এই জয়ে নয়বারের চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল কোয়ার্টার ফাইনালে দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে গেছে। চার পয়েন্ট নিয়ে এখন তারা টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। কোস্টা রিকাকে আরেক ম্যাচে ৩-০ গোলে হারিয়ে ডি-গ্রুপের শীর্ষ দল হিসেবে ছয় পয়েন্ট নিয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছে কলম্বিয়া। মঙ্গলবার গ্রুপের শেষ ম্যাচে কলম্বিয়ার মোকাবেলা করবে ব্রাজিল। তৃতীয় স্থানে থাকা কোস্টার রিকার থেকে ছয় গোল ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছে ব্রাজিল।

বাসস

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

nine − 8 =