সল্টের ব্যাটিংয়ে সুপার এইটে শুভ সূচনা ইংল্যান্ডের

ওপেনার ফিল সল্টের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে সহজ জয় দিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার এইট পর্ব শুরু করেছে  বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড। আজ সকালে সুপার এইটে গ্রুপ-২এ নিজেদের প্রথম ম্যাচে ইংল্যান্ড ৮ উইকেটে হারিয়েছে স্বাগতিক ওযেস্ট ইন্ডিজকে। ৪৭ বলে অনবদ্য ৮৭ রানের ইনিংস খেলে ম্যাচ সেরা হন সল্ট।

সেন্ট লুসিয়ায় টস হেরে প্রথমে ব্যাট হাতে নেমে ২৬ বলে ৪০ রানের জুটি গড়েন ওয়েস্ট ইন্ডিজের দুই ওপেনার ব্রান্ডন কিং ও জনসন চার্লস। পঞ্চম ওভারে ইনজুরিতে আহত অবসর নেন ৩টি চার ও ১টি ছক্কায় ১৩ বলে ২৩ রান করা কিং।

এরপর রানের গতি ধরে রেখে দ্বিতীয় উইকেটে ৪১ বলে ৫৪ রানের জুটি গড়েন চার্লস ও নিকোলাস পুরান। ৪টি চার ও ১টি ছক্কায় ৩৪ বলে ৩৮ রান করা চার্লসকে থামিয়ে জুটি ভাঙ্গেন ইংল্যান্ড স্পিনার মঈন আলি।

১২তম ওভারে দলীয় ৯৪ রানে প্রথম ব্যাটার হিসেবে চার্লসের বিদায়ে উইকেটে এসেই ঝড় তোলেন অধিনায়ক রোভম্যান পাওয়েল। ৫টি ছক্কায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের রানের গতি বাড়িয়ে ১৭ বলে ৩৬ রান করে  ফিরেন তিনি।

অধিনায়ক ফেরার পরপরই আউট হন  ৪টি চার ও ১টি ছক্কায় ৩২ বলে ৩৬ রান করা পুরান এবং  আন্দ্রে রাসেল(১)। ৬ রানের ব্যবধানে ৩ উইকেট হারালেও, শেষ ৩ ওভারে শেরফানে রাদারফোর্ডের ১টি চার ও ২টি ছক্কায় সাজানো ১৫ বলে ঝড়ো ২৮ রানের সুবাদে ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৮০ রানের সংগ্রহ পায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। কোন ব্যাটারের হাফ-সেঞ্চুরি ছাড়াই এটিই দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান ক্যারিবীয়দের। ইংল্যান্ডের চারজন বোলার ১টি করে উইকেট নেন।

জবাবে ৪৬ বলে ৬৭ রানের সূচনা পায় ইংল্যান্ড। অষ্টম ওভারে স্পিনার রোস্টন চেজের শিকার হয়ে ২২ বলে ২৫ রান করে আউট হন ওপেনার ও অধিনায়ক জশ বাটলার। অধিনায়কের বিদায়ে ক্রিজে এসে সুবিধা করতে পারেননি মঈন আলি। ২টি চারে ১৩ রান করেন তিনি।

৮৪ রানে দ্বিতীয় উইকেট পতনের পর দলের হাল ধরেন সল্ট ও জনি বেয়ারস্টো। ৩৮ বলে টি-টোয়েন্টিতে তৃতীয় হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন সল্ট। হাফ-সেঞ্চুরির পর দ্রুত ম্যাচ শেষ করার পথ তৈরি করেন তিনি। পেসার রোমারিও শেফার্ডের করা ১৬তম ওভারে ৩টি করে চার-ছক্কায় ৩০ রান তুলে ইংল্যান্ডের জয়ের পথ সহজ করে ফেলেন সল্ট।

তৃতীয় উইকেটে সল্ট ও বেয়ারস্টো ৪৪ বলে অবিচ্ছিন্ন ৯৭ রানের জুটিতে ১৫ বল বাকী রেখে ২ উইকেটে ১৮১ রান তুলে ম্যাচ জিতে নেয় ইংল্যান্ড। ৭টি চার ও ৫টি ছক্কায় ৪৭ বলে অপরাজিত ৮৭ রান করেন সল্ট। ৫টি বাউন্ডারি ও ২টি ওভার বাউন্ডারিতে ২৬ বলে অনবদ্য ৪৮ রান করেন বেয়ারস্টো।

বাসস

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

19 − twelve =