বিশ্বকাপ ট্রফি নিয়ে দেশে ফিরে প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনা পেল চ্যাম্পিয়ন ভারত

হারিকেন বেরিলার কারনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বার্বাডোজে তিন দিন আটকে থাকার পর অবশেষে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ট্রফি নিয়ে দেশে ফিরলো চ্যাম্পিয়ন ভারত। ১৬ ঘন্টার ভ্রমন শেষে দিল্লি বিমানবন্দরে আজ ভোরে পা রাখেন রোহিত-কোহলিরা। বিমানবন্দরে ফুলেল শুভেচ্ছায় ক্রিকেটারদের বরণ করে নেয় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) কর্মকর্তারা।

গত শনিবার দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৭ রানে হারিয়ে দ্বিতীয়বারের মত টি-টোয়েন্টি বিশ^কাপের শিরোপা জিতে ভারত। ২০০৭ সালে প্রথম আসরের শিরোপা জিতেছিলো টিম ইন্ডিয়া।

বিশ্বকাপের ফাইনাল শেষে  হারিকেন বেরিলা বার্বাডোজে  আঘাত হানলে আটকে পড়ে ভারতীয় দল। তিন দিন সেখানে আটকে থাকার পর গতকাল এয়ার ইন্ডিয়ার একটি চার্টার্ড ফ্লাইটে দেশে উড়িয়ে আনা হয় টি-টোয়েন্টির বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের।

আজ ভোর ৬টার কিছুক্ষণ পর দিল্লিতে অবতরণ করে ভারতীয় ক্রিকেট দলকে বহন করা বিমানটি।  বিমানে আরও ছিলেন ক্রিকেটারদের পরিবার, বিসিসিআই কর্মকর্তা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজে আটকে পড়া ভারতীয় সাংবাদিকরা।

এরপর ৭টার দিকে বিমানবন্দর থেকে বিশেষ নিরাপত্তা দিয়ে দিল্লির আইটিসি হোটেলে নেওয়া হয় ক্রিকেটারদের। হোটেলে বিশ্রাম শেষে সকাল ১০টায় দু’টি বাসে করে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বাসভবনে যান তারা।

মোদির সাথে দেখা করে প্রধানমন্ত্রীর হাতে বিশ্বকাপ ট্রফি তুলে নেন ভারতের অধিনায়ক রোহিত শর্মা ও প্রধান কোচ রাহুল দ্রাবিড়। ট্রফি হাতে নিয়ে বিশ্বকাপ জয়ী দলের সাথে ছবি   তোলেন  মোদি।

ফটোসেশন শেষে সব ক্রিকেটারদের সাথে গল্প করেন মোদি। ক্রিকেটারদের সাথে সেই আলাপচারিতা ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে।

প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন থেকে বের হয়ে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে ভারত অধিনায়ক রোহিত বলেন, ‘এটা দারুণ কিছু। আমার দলকে বিশ্বকাপ ট্রফির সাথে দেখা। আমি ২০১১ বিশ্বকাপ জয় দেখেছি। এই মুহূর্তটা আমি কখনোই ভুলবো না।’

প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনা শেষে মুম্বাইয়ের উদ্দেশ্যে রওনা হয় ভারত দল। সেখানে টিম ইন্ডিয়ার জন্য ‘ভিক্টরি প্যারেড’ আয়োজন করা হয়েছে। বিকেল ৫টায় ছাদখোলা বাসে করে বিশ্বকাপ ট্রফি নিয়ে বিজয় শোভা যাত্রা করে  মুম্বাইয়ের জনপ্রিয় স্টেডিয়াম ওয়াংখেড়েতে যাবে পুরো দল।

১৭ বছর আগে মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বে প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ের পর এরকম জাকজমকপূর্ণ সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়েছিল। সে বার দিল্লির বিমানবন্দর থেকে সরাসরি মুম্বাইয়ে ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে গিয়েছিলো প্রথম আসরের চ্যাম্পিয়ন হওয়া দলটি।

বাসস

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

3 × three =